সিলেটে তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি’র ২৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি (গ্রাসরুটস)-এর ২৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় মেট্রাপলিটন চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ’র সম্মেলন কক্ষে এই আলোচনা সভা ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি (গ্রাসরুটস)-এর উপদেষ্ঠা মারিয়াম চৌধুরী মাম্মির সভাপতিত্বে ও প্রধান নির্বাহী পরিচালক হিমাংশু মিত্রের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট বিসিক’র উপ-মহাব্যবস্থাপক ইঞ্জিনিয়ার মো: সুহেল হাওলাদার, সিলেট মেট্রাপলিটন চেম্বার অফ কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক মো: মোয়াম্মীর হোসনে চৌধুরী।

জাতীয়ভাবে বিগত বছরে যারা সম্মাননা পেয়েছেন তারা হলেন, গ্লাসরুটস্ ঢাকা উত্তরের সভাপতি আবিদা সুলতানা শ্রেষ্ঠ জেলা সভাপতি, গ্লাসরুট্ নিলফামারী জেলার সম্পাদক জেসমিন খানকে শ্রেষ্ঠ সংগঠক, গ্লাসরুট সুনামগঞ্জ জেলাকে শ্রেষ্ঠ জেলা, ডা: লেনিন চৌধুরীকে শ্রেষ্ঠ স্বাস্থ্য উপদেষ্ঠা, আবুল হোসাইনকে শ্রেষ্ঠ সাংগঠনিক উপদেষ্ঠা এবং মঈন খান বাবলুকে শেষ্ঠ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্ঠা, নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা জেলা পর্যায়ে পান রুমা চৌধুরী ও ফাতেমা সুলতানা।

করোনাকালে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পাশে থেকে সহায়তা করায় বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক), জনতা ব্যাংক জিন্দাবাজার সিলেট শাখাকে কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূল মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে, তৃণমূল মানুষের উন্নয়ন ছাড়া দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায়শই বিভিন্ন আলাপ-আলোচনায় তৃণমূল মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন ছাড়া বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব নয় বলে উল্লেখ করে থাকেন। তার এ কথা বলার মধ্যে কোনো খাদ নেই। কারণ তিনি যে এই তৃণমূল মানুষদেরই নেতা, তাদেরই প্রতিনিধি। তিনি ছাড়া তাদের কথা আর কে ভাবতে পারেন?বাংলাদেশে তৃণমূল মানুষের সংখ্যাইতো জনসংখ্যার সিংহভাগ। আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে এ মানুষগুলোর অংশগ্রহণই ছিল সবচেয়ে বেশি।

সেই জনগোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে যেমন বাংলাদেশের উন্নয়ন চিন্তা করা যায় না, তেমনি সম্ভবও নয়। এক কথায় বলতে হয়, পুরো দেশটার উন্নয়নের অর্থ তৃণমূলের জনগোষ্ঠীর ভাগ্যের উন্নয়ন ঘটানো। নারী ও শিশুদের উন্নয়নে সরকারের পদক্ষেপ তুলে ধরে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ নারীর ক্ষমতায়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। সরকারের কর্মসূচিতে তৃণমূলের নারীরা এখন স্বাবলম্বী হচ্ছে। শিক্ষা উপবৃত্তি, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা ট্রাস্টসহ বিভিন্ন পদক্ষেপের ফলে নারীদের আজ উচ্চশিক্ষার সুযোগ অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। সারা দেশে নারীর অর্থনৈতিক মুক্তি নিশ্চিত হচ্ছে। নগরের পাশাপাশি গ্রামের নারীদের ক্ষমতায়নের বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সভায় সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালীন উপদেষ্টা সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মরহুম বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাছুমা খানম, সুনামগঞ্জ জেলার অন্যতম সদস্য কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষা এসএজিডিএফ এর অসমরাজ্য কমিটির আহ্বায়ক ডা. জ্যোতিষ দেবের আত্মার শান্তি কামনা করে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

 

 

 

 

 

—বিজ্ঞপ্তি ।।

Loading...