ক্রেতাদের সুন্তুষ্ঠি অর্জনে ব্যবসায়ীদের আন্তরিক হতে হবে

লালবাজার মৎস্য ব্যবসায়ীদের জরুরী সভায় বক্তারা

সিলেট নগরীর বন্দরবাজাস্থ লালবাজার মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিমিটেডের এক জরুরী সভা রোববার বিকেল ৩টায় সংগঠনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
সমিতির সভাপতি শেখ মো. এনায়েত হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গোলজার আহমদ জগলুর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বাজরের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

তাছাড়া স্বাস্থ্যসম্মত ও সুষ্ঠুভাবে যাতে বাজারে ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা পরিচালনা করতে পারেন সে ব্যাপারে সভায় বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। সভায় বক্তারা সিলেটের ঐতিহ্যবাহী লালবাজারের সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে সকল মৎস্য ব্যবসায়ী ও সমিতির সদস্যদের সহযোগিতা কামনা করেন।

বক্তারা বলেন, কোন অবস্থাতেই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বাজারে মাছ বিক্রি করা যাবে না। চিংড়ি মাছ বিক্রি করতে হলে সম্পূর্ণ জেল মুক্ত চিংড়ি বিক্রি করতে হবে। ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে সুন্দর সম্পর্ক যাতে গড়ে ্ওঠে সেদিকে সবাইকে সুদৃষ্টি রাখতে হবে। বাজারের যাতে কোন প্রকার বদনাম না হয় সেজন্য পঁচা ও পরিত্যাক্ত মাছ বিক্রি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়।

ইতোমধ্যে লালবাজার মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিমিটেডের উদ্যোগে বাজারকে ফরমালিন মুক্ত করা হয়েছে। এধারা অব্যাহত রাখতে হবে এবং স্বাস্থ্যসম্মতভাবে তাজা মাছ ক্রেতাদের হাতে তুলে দিতে হবে। বর্তমান সময়ে মহামারি করোনা ভাইরাসের হাত থেকে নিজি এবং বাজারে আগত ক্রেতাদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। বিশেষ করে বাজারে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বার বার নিষেধ করার পরও ফুটপাত ও রাস্তা জুড়ে এখনও ভাসমান হকাররা মাছ বিক্রি করে ঐতিহ্যবাহী বাজারগুলির সুনাম বিনষ্ট ও ক্ষতিগ্রস্থ করছে।
সভায় বক্তব্য রাখেন সমিতির সহ সভাপতি নজরুল ইসলাম আফাজ, অর্থ সম্পাদ সালা উদ্দিন সালাই, লালবাজার দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, অর্থ সম্পাদক জাহিদ আহমদ খান, দারা মিয়া, ফারুক আহমদ, ইব্রাহিম মিয়া, বেলাল আহমদ, হিরা আলম প্রমুখ।

 

 

 

—বিজ্ঞপ্তি

Loading...