রাতারগুলে ফখর মেম্বারের চাঁদাবাজি প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ দাবি

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

সিলেটের রাতারগুল সোয়াম ফরেস্ট খেওয়াঘাটে চাঁদাবাজির গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘাটের চাঁদাবাজ ইউপি মেম্বার ফখর উদ্দিন তার সহযোগী চক্রের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে।

রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) সিলেটের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবওে দাখিলকৃত পৃথক আবেদনে এ দাবি জানানো হয়। আবেদনে অভিযোগ করা হয়, সিলেটের গোয়াইনঘাট থানাধীন রাতারগুল সোয়াম্প ফরেস্ট মাঝেরঘাটে নৌকা দিয়ে পর্যটকদের বহন করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করেন প্রায় অর্ধশত মাঝি। ওই এলাকার ইউপি মেম্বার ফখর উদ্দিন এর নেতৃত্বে একটি চাঁদাবাদ সন্ত্রাসী চক্র ঘাটের প্রত্যেক নৌকার মাঝির কাছে ১০ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবি করে।

চাঁদা না দিলে তারা নৌকা চালাতে ও পর্যটকদের বহন করতে দেবে না বলে হুমকি দিতে থাকে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর মেম্বার ফখর উদ্দিনের নেতৃত্বে তার দলীয় সন্ত্রাসীগন সশস্ত্র অবস্থায় নৌকা ঘাটে জমায়েত হয়ে মাঝিদের কাছে আবারো ১০ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তারা নৌকার মাঝিদেরকে মারপিট করে আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে ফুলা জখম করে এবং আগত পর্যকদের পর্যটন স্পটে যেতে বাঁধা সৃষ্টি করে। পাশপাশি তাদের হত্যাসহ নানা হুমকি ধমকি প্রদান করে।

ফলে দিনমজুর মাঝিরা চরম পর্যটকদের বহন করতে না পরায় অনাহারে অর্ধাহারে দিনযাপন করছে। আবেদনে মাঝের ঘাটের মাঝি ও পর্যটকদের নিরাপত্তা বিধানে মেম্বার ফখর উদ্দিনের নেতৃত্ব চাঁদাবাজ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক আইনত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানানো হয়। রাতারগুল সোয়াম ফরেস্ট মাঝের ঘাটের নৌকা মাঝিদের পক্ষে মো: খালেদ আহমদ এ আবেদন করেন।

আবেদনে যাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ আনা হয়েছে,তারা হলো সিলেটে গোয়োইনঘাট থানার বাগবাড়ি গ্রামের ইউপি মেম্বার ফখর উদ্দিন, একই গ্রামের, রশিদ, আব্দুল্লাহ, মনছাদ, কামরুল , আব্দুল আজিজ, আইয়ুব আলী, শরীফ, জুবেল @ মেগনেট ও আহাদ এবং গোয়াইনঘাট থানার মামনগর গ্রামের মালিক, মতিন ও কয়ছর।
ডসরেটে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংশ্লিষ্ট শাখা আবেদন প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

Loading...