জৈন্তাপুরে দেবরের হাতে ভাবী খুন ভাই আহত

জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি-

সিলেটের জৈন্তাপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দেবরের ধারালো ছুরির আঘাতে ভাবী খুন, বড় ভাই আহত, ও পুলিশ খুনি সহ ২ জনকে আটক করেছে, খুনে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার। সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের ফরফরা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, দীর্ঘ দিন হতে জমি সংত্রুান্ত বিষয় নিয়ে পারিবারিক ভাবে বিরোধ চলছে। ২৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় ফরফরা গ্রামের ওহাব আলীর স্ত্রী সোনারা বেগম (৫০) বাড়ীর অংশ হতে বাঁশ কাটতে যান। দেবর আব্দুল করিম (৩৮) বাঁশ কাটতে ভাবীকে বাঁধা দেন।

বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায় দেবর আব্দুল করিম ধারালো ছুরি নিয়ে এসে সোনারা বেগমের উপর উপযুপরি আঘাত করতে থাকে। পরবর্তীতে গাড় লক্ষ করে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই দেবরের হাতে ভাবীর মৃত্যু হয়। ঘটনা দেখতে পেয়ে নিহতের ভাসুর তোরাব আলী (৬৮) বাঁধা দিতে গেলে ছোট ভাইয়ের ছুরির আঘাতে তিনিও গুরুতর আহত হন।

স্থানীয়রা ঘটনার চিৎকার শুনতে পেয়ে এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল হতে গুরুত্বর আহত তোরাব আলীকে উদ্ধার করে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

খুনের ঘটনার সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমদ, উপ-পরিদর্শক (এস.আই) কাজী শাহেদ আহমদ সহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে ঘাতক আব্দুল করিম ও তার স্ত্রী শিরিনা বেগম (৩০) কে আটক করা হয়।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্থা গোলাম দস্তগীর আহমদ বলেন, আমরা লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছি, খুনি ও তার স্ত্রীকে আটক করি এবং আটকৃতদের নিকট হতে খুনে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Loading...