যা কিছু পাওয়া গেল হেলেনার বাসায়

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

আওয়ামী লীগ উপ-কমিটির সদস্য পদ হারানো হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশানের বাসা থেকে বিদেশি মদ, ইয়াবা, হরিণের চামড়া ও দেশিয় অস্ত্র পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাতে অভিযানের পর গুলশানের বাসার সামনে এসব গণমাধ্যমের সামনে তুলে ধরেন র‌্যাব কর্মকর্তারা।

অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু গণমাধ্যমকে জানান, হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা থেকে বিদেশি মদ, ইয়াবা, হরিণের চামড়া ও দেশিয় অস্ত্র পাওয়া গেছে। এছাড়া তার বাসা থেকে ক্যাসিনো খেলার সামগ্রী, বিদেশি পরিমাণ মুদ্রা উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আগামীকাল তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এখন তাকে র‌্যাবের কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’

বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় গুলশান ২ এর ৩৬ নম্বর রোডের হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ নম্বর বাসায় র‌্যাব-১ এর একটি দল অভিযান পরিচালনা শুরু করে। হেলেনা জাহাঙ্গীর এই ভবনের পঞ্চম তলায় থাকেন। তার ফ্ল্যাটে প্রায় ঘন্টা সোয়া চারঘন্টা অভিযানের পর রাত সোয়া ১২ টার সময় হেলেনা জাহাঙ্গীরকে নিয়ে র‌্যাবের গাড়িতে তোলা হয়।

র‌্যাবের নারী উইংয়ের কয়েকজন সদস্য এই অভিযান পরিচালনায় অংশ নেন। র‌্যাবের গাড়িতে উঠার আগে গ্যারেজ পেরুনোর সময় হেলেনা জাহাঙ্গীর টিভি ক্যামেরা দেখে হাত নাড়েন। শুভেচ্ছা বিনিময়ের ভঙ্গিতে দুই হাত নাড়ান। মুখে থাকা মাস্ক খুলে ফেলেন। পাশে দাড়ানো র‌্যাবের এক সদস্য এই বিষয়ে তার দৃষ্টি আর্কষণ করলে তিনি ফের থুতনিতে নামানো মাস্ক দিয়ে মুখ ঢাকেন।

অভিযান পরিচালনাকালে দীর্ঘ সময় ধরে হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশানের বাসভবনের সামনে মিডিয়া কর্মীদের ভিড় লেগেছিল। গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে মিডিয়াকর্মীরা গেটের বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এই অভিযান পরিচালনার জন্য ৩৬ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাড়ি থেকে অন্যান্য বাসিন্দাদের কাউকে বেরিয়ে যেতে বা কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতেও দেখা যায়নি।

উল্লেখ্য, নানা কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই আলোচনায় হেলেনা জাহাঙ্গীর। জয়যাত্রা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হেলেনা গত ১৭ জানুয়ারি আ.লীগের উপকমিটির সদস্য হয়েছিলেন। গত বছরের ডিসেম্বরে কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হন তিনি।

সম্প্রতি ফেসবুকে বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি হিসেবে হেলেনা জাহাঙ্গীরের নাম আসায় তাকে উপকমিটির পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি।

চুমকি বলেন, তিনি (হেলেনা) এগুলো আমাদের না জানিয়ে করেছেন। আমি ইতিমধ্যে আমাদের দপ্তরে জানিয়েছি তাকে অব্যাহতির চিঠি দিয়ে দেয়ার জন্য। আমাদের উপকমিটিতে যেহেতু তিনি নিয়মনীতি ভঙ্গ করেছেন, তাই তার সদস্যপদ আমরা বাতিল করে দিয়েছি।

এদিকে হেলেনা জাহাঙ্গীর কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ছিলেন। সেখান থেকেও তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

 

Loading...