শ্রীমঙ্গলে হাত এবং পায়ের দ্বিখন্ডিত অংশের পর উদ্ধার হলো শরীর

মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে হাত,পা এর খন্ডিত অংশ পাওয়ার একদিন পর আজ মিলেছে শরীর। তবে মাথার অংশ এখনো মিলেনি। মাথা খুঁজে বের করতে পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় খুঁজ করে বেড়াচ্ছে।চালিয়েছে তুড়জোড় তল্লাশী।

গতকাল মঙ্গলবার ২২জুন দুপুরে উপজেলার মির্জাপুর ইউপি বৌলাছড়া এলাকায় সাড়ি সাড়ি গাছ বাগানের ঝোপ থেকে দেহের অংশটি উদ্বার করে পুলিশ।

এর আগে গত সোমবার সকালে মির্জাপুর ইউপি যাত্রাপাশার দক্ষিণ পাচাউন গ্রামে একটি কচুক্ষেতে একটি পায়ের দ্বিখন্ডিত অংশ পাওয়া যায়।

পরে আশপাশ এলাকা খুঁজ করে আধাকিলোমিটার দূরে দুটি বাশ ঝাড়ে থেকে দুটি কাটা হাত উদ্বার করে পুলিশ।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন, সকাল বেলা গরু নিয়ে এক নারী বৌলাছড়ার ঝোঁপঝাড়ের দিকে গেলে একটি বস্তা দেখতে পায়। সেখানে থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছিলো। পরে সে পুলিশে খবর দেয়।

এই জায়গা থেকে গতকালের কচুক্ষেত  প্রায় আধাকিলোমিটারের দূরত্বে। শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুছ ছালেক(দুলাল) বলেন,

আমরা ঘটনাস্থলে যে শরীর টি উদ্ধার করেছি সেটা একটা নারীর শরীর। এখনো মাথা পাওয়া যায় নি। তার বয়স আনুমানিক ২৩ থেকে ২৪ বছর হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, একটি বস্তার ভিতরে শরীরটি রাখা ছিলো। মাথা খুঁজে বের করতে আমরা পুরো এলাকায় তল্লাশী করছি। নারীর পরিচয় এখনো মেলেনি।

তিনি বলেন, সেখানে আলামত গুলো সংগ্রহ করা হচ্ছে, শরীরটি ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Loading...