পাঁচ মাস থেকে নিখোঁজ ছেলের জন্য ফৈজুন নেছার হাহাকার

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

১৫ বছরের দুর্দান্ত এক কিশোরকে ছেলেকে হারিয়ে এখন উন্মাদপ্রায় এক জননী। প্রায় ৫ মাস ধরে নাওয়া খাওয়া ছেড়ে ঘুরছেন ছেলে সন্ধানে। তার ধারণা, কোন খারাপ লোকের পাল্লায় পড়ে সোনার ছেলেটি তার খুব কঠিন অবস্থায় রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানায় জিডি করা হলেও কোন সুসংবাদ মিলেনি আজো। নিখোঁজ ছেলেটির নাম তাসলিম উদ্দিন। সে সুনামগঞ্জের দিরাই থানার রাজনগর ইউনিয়নের কাজুয়াবাদ গ্রামের মৃত হিফজুর রহমানের ছেলে।

গত ১০ জানুয়ারি হঠাৎ কাউকে কিছু না জানিয়ে সে বাড়িতে থেকে বেরিয়ে যায়। তারপর সে ০১৭৬১৫৯৫৪৫৩ মোবাইল নম্বর দিয়ে তার মা ফৈজুন নেছা ও তার এক খালুর সাথে দু’একবার কথা বলে। অনেক চেষ্টায়ও সে তার অবস্থান কাউকে জানায়নি। তবে তার কথাবার্তা শুনে ফৈজুন নেছার মনে হয়েছে, কোন খারাপ লোকের খপ্পরে পড়েছে। তাকে খুব বিমর্ষ এবং বিপদগ্রস্ত মনে হয়েছে ফৈজুন নেছার।

এরপর গত ২২ ফেব্রুয়ারি দিরাই থানায় তিনি একটি সাধারণ ডাইরি (নং ৯১৭/২২/০২/২১) দায়ের করেন। কিন্তু এরপর প্রায় ৩ মাস পেরিয়ে গেলেও কোন সন্ধান মিলেনি তাসলিমের। ফৈজুন নেছা জানান, স্বামীকে হারিয়ে সন্তানের মুখের দিকে চেয়ে অভাব অনটনের বিরুদ্ধে কঠোর সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এখন সন্তানকেও হারিয়ে খুব অসহায় বোধ করছেন। নানা আশঙ্কায় তার মাতৃহৃদয়ে চলছে হাহাকার।

তিনি জানান, ৪ ফুট ৭ ইঞ্চির তাসলিমের গায়ের রঙ গাঢ় শ্যামলা, সে সুনামগঞ্জের আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে। তিনি তার সন্তানকে ফিরে পেতো দেশের পুলিশসহ সচেতন মানুষের সহযোগিতা চেয়েছে।

Loading...