১০ দিন থেকে ব্যবসায়ীর ধান সহ ট্রাক উধাও!

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃঃ

২২০ বস্তা ধান নিয়ে গত দশ দিন ধরে ট্রাকসহ নিখোঁজ রয়েছেন এক চালক। সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার বাজার থেকে কুমিল্লার বাটেরা কংশনগর জাপান বাংলা অটোরাইসমিলে ওই ধান পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল যদিও কিন্তু ১০ দিন অদ্যাবদী কোনো হদিস পাওয়া যাচ্ছে না! চালকের মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। এদিকে ধান ব্যবসায়ী মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর নইনার পাড় বাজারের আমির আলী অটোরাইসমিলের স্বত্বাধিকারী মোঃ আমির আলী, ধান সহ গাড়ি নিখোঁজ হওয়ার পর কয়েক দফা দিরাই থানা ও সুনামগঞ্জ সদর থানায় ধর্ণা দেন সাধারণ ডাইরি করার জন্য। কিন্তু কোন থানায় তার সাধারণ ডাইরি গ্রহণ করেনি । অবশেষে আট দিনের মাথায় সুনামগঞ্জ সদর থানা তার অভিযোগ গ্রহণ করে। বর্তমানে সুনামগঞ্জ সদর থানা পুলিশ অভিযোগটি তদন্ত করছে বলে ধান ব্যবসায়ী মালিক জানিয়েছেন। ধান ব্যবসায়ী আমির আলী গত (২৭ এপ্রিল)মংগলবার মেসার্স সুনামগঞ্জ মর্ডান ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মাধ্যমে ট্রাক মারফত গাড়ি নং (ঢাকা-মেট্রো-ট-২০-৫৯৭৯) কে ১৭ হাজার টাকায় ভাড়ায় চুক্তি করেন। ঔই দিন রাত নয়টার দিকে হক সুপার মার্কেট ওয়েজখালি সুনামগঞ্জ থেকে ২২২ বস্তা (৪৪৪ মণ) ধান নিয়ে কুমিল্লা জেলার বাটেরা কংশনগর জাপান বাংলা আলি আশরাফ মেম্বারের অটোরাইসমিলের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ট্রাকচালকের নাম সাজু মিয়া। ঔই রাতে কয়েক ঘণ্টা চালক সাজু মিয়ার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ থাকলেও সকালে ফোন দিলে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। যা আজ ( ৭মে)এখন পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে। ধান ব্যবসায়ী মালিক আমির আলী জানান, এ ব্যাপারে তিনি গত ২৭ এপ্রিল এর পর বেশ কয়েক দফা দিরাই থানা ও সুনামগঞ্জ সদর থানায় ধর্ণা দেন শুধু মাত্র সাধারণ ডায়েরি করার জন্য। প্রথমত কেউ তার সাধারণ ডায়েরি গ্রহণ করেনি। অবশেষে গত ৩ মে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা তার অভিযোগ গ্রহণ করে। থানায় মামলা নং আর-১৯/ ৫৭৬/২১। তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রথম দিকে পুলিশ তার সাধারণ ডায়েরি গ্রহণ করলে সোয়া ৪ লক্ষ টাকার ধান উদ্ধার করা সম্ভব হতো। ধান নিয়ে গাড়ি উদাও হওয়া ঘটনার একদিন পর গত ২৮ এপ্রিল মেসার্স সুনামগঞ্জ মর্ডান ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মালিক মো. হাবিবুর রহমান দিরাই থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেছেন ডাইরি নং ১২৮৬ বলে জানা গেছে । এ ব্যাপারে মামলার পরিচালক পুলিশ সদস্য সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই আব্দুল রাজ্জাক অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন আমরা তদন্ত শুরু করেছি খুব শীগ্রই এর বিহীত হবে বলে আশা বাদি। তবে তদন্তের বাহিরে কিছু বলা যাচ্ছে না।

Loading...