বড়গাং নদীতে বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন, প্রশাসন নিরব

মোঃ রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি-
সিলেটের বড় নয়াগাং নদীতে বোমা মেশিন বসিয়ে পাথর উত্তোলন করছে একটি চক্র। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে। অভিযোগ বার বার এলাকাবাসী অভিযোগ জানালেও কোন প্রতিকার হচ্ছে না।
সরেজমিনে বড় নয়াগাং নদীর রুপচেং এলাকা ঘুরে দেখাযায়, একটি প্রভাবশালী চক্র দীর্ঘ দিন হতে বালু ভরাটের নামে বড় নয়াগাং নদীর মধ্যে ৬ সিলিন্ডারের একটি বোমা মেশিন স্থাপন করে বালু ভারটের কাজ করছে। কিন্তু তার আড়ালে রাতে ঐ স্থান হতে বোমা মেশিনের মাধ্যমে পাথর উত্তোলন করে আসছে চক্রটি। উপজেলা প্রশাসনকে মৌখিক ভাবে জানালেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। যার কারনে নদীর পাড় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে এবং ফসলী জমি নদীর বুকে চলে যাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে আঘত বন্যায় বাংলাদেশ পানি উন্নয়নের বোর্ডের (ওয়াপদা) বেড়ী বাঁধ হুমকীর মুখে এবং ফসলী জমি নদী গর্ভে বিলিন হবে। ১৯৮৮, ১৯৯৮ কিংবা ২০০০ সনের মত পাহাড়ী ঢল ও আকস্মীক বন্যা নামলে বেড়ী বাঁধের ভিতর ও বাহিরের বসবাসরত মানুষের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হবে বলে আশংঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। সংবাদকর্মীর উপস্থিতিটের পেয়ে বোমা মেশিন পরিচালনার সাথে জড়ীতরা মেশিন ফেলে পালিয়ে যায়।
এবিষয়ে জানতে কথা হয় বড় নয়াগাং নদীর বালু মহালের ইজারাদার মেসার্স শাহিন এন্টারপ্রাইজের পরিচালক শাহিন আহমদ বলেন, শ্রমিকরা নৌকা দিয়ে ঘাটে বালু নিয়ে আসে। আমরা লোড পয়েন্ট হতে রাজস্ব আদায় করছি। যদি কেউ বোমা মেশিন বসিয়ে পরিবেশের ক্ষতি সাধান করে বিষয়টি আমার জানা নেই।
এবিষয়ে জানতে সহকারী কমিশনার(ভূমি) ফারুক আহমদ জানান, বোমা মেশিনের বিষয়টি জেনে আমরা দুইবার সরজমিনে গিয়ে তাদেরকে পাওয়া যায়নি। সঠিক তথ্য পেলে তাৎক্ষনিক ভাবে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Loading...