জৈন্তাপুর সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ ২টি মামলা ভারতীয় খাসিয়াকে হাজতে প্রেরণ

জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি-
সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭ নং ঘিলাতৈল সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং অপহরনের ঘটনায় বিজিবি বাদী হয়ে দুটি মামলা দায়ের করেছে। অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
বিজিবি ও পুলিশ সূত্রে যানাযায় ১৬ এপ্রিল শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় ভারতের জৈন্তিয়া হিলসের জোয়াই জেলার আমলারোম থানার আমলারেম গ্রামের মন মাউরার ছেলে অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু (৪২) চোরাকারবার করার জন্য সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭ নং ঘিলাতৈল সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে। এসময় জৈন্তাপুর উপজেলার জৈন্তাপুর ইউনিয়নের বাউরভাগ মল্লিফৌদ গ্রামের তবারক আলীর ছেলে তাজ উদ্দিন (৩৫) এবং বাতেন মিয়া (৩৬) সহ অজ্ঞাত আরও ২জন ব্যক্তি চোরাকারবারের লেনদেনের দায়ে তাকে অপহরন করে। ভারতীয় নাগরিক অপহরনের সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম দস্তগির আহমদের নির্দেশনায় কিলো ডিউটি পালনে নিয়োজিত এসআই পার্থ রঞ্জন চক্রবর্তী ও ১৯ বিজিবির জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার মোঃ জুয়েল আকন্দের নেতৃত্বে বিজিবির সদস্যরা ভারতীয় নাগরিক অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রাম হইতে উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে আসে। পুলিশ বিজিবির উপস্থিতিটের পেয়ে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়।
বিজিবির অভিযোগ সূত্রে আরও জানাযায়, চোরাকারবার লেনদেনের দায়ে হোয়াটঅ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ভারতীয় খাসিয়া অবৈধ ভাবে সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭নং পিলার এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। চেরাকারবারীরা সাথে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। একপর্যায় চোরাকারবারীরা থাকে তাকে অপহরণ করে উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রামে নিয়ে যায়। ১৭ এপ্রিল শনিবার ১৯ বিজিবির জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার (৬১৩৯১) মোঃ জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে পৃথক পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে মামলা নং- ১১, ১২।
জৈন্তাপুর উপজেলার স্থানীয় বাসিন্ধা নুর উদ্দিন, ইব্রাহিম আলী, হানিফ আলী, রুস্তম মিয়া জানান, ১৯ বিজবির আওতা ভূক্ত এলাকার ঘিলাতৈল, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, ফুলবাড়ী, গোয়বাড়ী, এবং ১৯ বিজিবির লালাখাল এর আওতায় প্রতিদিন সংশ্লিষ্ট বাহিনীর সদস্যদের সম্মুখে চোরাকারবারীরা বিনা বাঁধায় ভারতীয় বিডি-সিগারেট, মদ-মাদক, এবং গরু-মহিশ নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। রহস্যজনক কারনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা প্রতিকার ব্যবস্থা গ্রহণ না করার কারনে সীমান্তের চোরাকারবারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। উপজেলার সেরা চোরাকার রোড হিসাবে লালাখাল চিহ্নিত হয়ে উঠেছে।
জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, বিজিবির হাবিলদার মোঃ জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে ভারতীয় নাগরিক অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং তাকে অপহৃত হওয়ার ঘটনায় এজাহার দাখিল করে। এজাহার গুলো মামলা হিসাবে রেকর্ড করে অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু আদালতের মাধ্যমে হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Loading...