নগরী থেকে ফের বরখাস্তকৃত এসআই রোকন কথিত স্ত্রী ও ইয়াবাসহ আটক

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

সিলেট নগরীর সুবিদবাজার থেকে ইয়াবাসহ পুলিশের সাময়িক বরখাস্তকৃত উপ-পরিদর্শক (এসআই) রোকন উদ্দিন ভূঁইয়াকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় রোকনের কথিত স্ত্রীসহ আরও তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

বাকি আটকৃতরা হলেন- রোকনের বান্ধবী রীমা বেগম (৪১), জসিম উদ্দিন (২৪) ও ফাহিম শাহরিয়ার (৪১)। রোকন উদ্দিন আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে (এপিবিএন) কাজ করতেন।

গত সোমবার (১৮ই জানুয়ারি) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে তাদের আটক করা হয় বলে সিলেট মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো এক ক্ষুদে বার্তায় জানানো হয়।

ক্ষুদে বার্তায় আরও বলা হয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুবিদবাজারের চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকার এ ব্লকের ৩নং খাঁন মঞ্জিল বাসায় কোতোয়ালি থানার সহকারী কমিশনার মো. সামসুদ্দিন সালেহ আহমেদ ও অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম আবু ফরহাদের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়।

২০১৯ সালের ২৬শে জানুয়ারি র‌্যাবের হাতে আটক এসআই রোকন উদ্দিন ও রীমা বেগম
অভিযানে ওই বাসা থেকে ১৮৫ পিস ইয়াবা ও নগদ ৮২ হাজার ৩০০ টাকাসহ সাময়িক বরখাস্তকৃত এসআই রোকনসহ চারজনকে আটক করা হয়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মো. রোকন উদ্দিন মাদক সংক্রান্ত মামলার আসামি হওয়ার কারণে আগে থেকেই সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ২৬শে জানুয়ারি শিশুদের আটকে রেখে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করা এবং ইয়াবা বিক্রির অভিযোগে সিলেট নগরের দাড়িয়াপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে এসআই রোকন উদ্দিন ও তার কথিত স্ত্রী রীমা বেগমকে আটক করেছিল র্যাব-৯। ২৬ জানুয়ারি দিবাগত রাতে অভিযানের সময় ওই বাসা থেকে ১২ ও ১৩ বছর বয়সের দুই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মাদক ও শিশুকে দিয়ে পতিতাবৃতির অভিযোগে আদালতে চার্জশিটও দেয়া হয়। ওই ঘটনায় রোকনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এরপর তারা বেশ কয়েকমাস কারাগারে আটক থাকার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিনে বের হন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close