গোয়াইনঘাটের তোয়াকুল ইউনিয়নের গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী আটক

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি ::

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নিহত গৃহবধূ উপজেলার ৮ নং তোয়াকুল ইউনিয়নের কান্দিগ্রামের কুতুবউদ্দিন (২৮) এর স্ত্রী এবং ৭ নং নন্দীরগাওঁ ইউনিয়নের কদতমতলা গ্রামের শফিক মিয়ার মেয়ে। এ ঘটনায মহিলার স্বামী কুতুব উদ্দিনকে আটক করেছে সালুটিকর পুলিশ তন্তকেন্দ্রের পুলিশ। নিহত রাহেনার পিতা শফিক মিয়া জানান, ২৫ নভেম্বর (বুধবার) রাত সাড়ে ৯ টায় রাহেনার স্বামী কুতুবউদ্দিন মোবাইল ফোনে জানায় রাহেনা গলায় দড়িয়ে মারা গেছে। খবর পেয়ে সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোঃ শফিকুল ইসলাম খানকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দেখতে পাই রাহেনার স্বামী কুতুব উদ্দিনের বাড়ির পূর্ব পার্শ্বে চলিতার গাছের ডালের সাথে লাইলেন রশি গলায় পেছিয়ে ঝুলে আছে। রাহেনার ঝুলে থাকার বিষয়টি আমাদের কাছে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। ফলে আমরা আইনের সহায়তা নিচ্ছি। তিনি আরো জানান, ২০১৬ সালে কান্দিগ্রামের মৃত কাদিরের ছেলে কুতুবউদ্দিনের সাথে আমার মেয়ে রাহেনার বিয়ে হয়। তাদের ৩ বছরের একটি মেয়ে আছে। অপরদিকে পুলিশের কাছে আটকৃত রাহেনার স্বামী কুতুব উদ্দিন তার উপর আনীত সকল অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে জানান, পারিবারিক বিষয়ে ঝগড়াঝাটি হলে সর্বদা সে আত্মাহত্যার হুমকি দিতো। এ বিষয়ে আমার কিচ্ছু জানা নেই। খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) দিলীপ কান্ত নাথ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং নিহত রাহেনার পিতা শফিক মিয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির জন্য সংশ্লিষ্টদের বলেন। এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ বলেন, রাহেনা বেগমের মৃত্যুর বিষয়টি স্বাভাবিক নয় বলে তার পিতা শফিক মিয়ার দাবি। তাই শফিক মিয়ার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে উক্ত বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close