তরুণীকে ‘যৌনতার প্রস্তাব’ দেওয়া ব্যক্তি অমিতাভ রেজা নন

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

কিছুদিন আগে ‘আয়নাবাজি’ খ্যাত নির্মাতা অমিতাভ রেজার বিরুদ্ধে ‘যৌনতার বিনিময়ে কাজের প্রস্তাব’ দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিলে এক তরুণী। ওই সময় অমিতাভ রেজা বিষয়টি অস্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে এমন কোনো প্রস্তাব দেওয়া হয়নি। এবার অভিযোগকারী তরুণী নিজেই জানিয়েছেন, নির্মাতা অমিতাভ রেজার নামে আইডি চালানো ব্যক্তিকে সনাক্ত করা গেছে।

ওই তরুণী ফেসবুকে লিখেছেন, ‘সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের অনুসন্ধানে প্রাথমিকভাবে  অমিতাভ রেজা নামক প্রোফাইল পরিচালনাকারীকে সনাক্ত করা গিয়েছে। যেহেতু আইনের দ্বারস্থ হয়েছি তাই শুধু আইনের মাধ্যমেই ন্যায়বিচার দাবী করবো। নির্মাতা অমিতাভ রেজা সাহেবের জন্য শুভকামনা। আর যারা এই যুদ্ধে পাশে ছিলেন সবাইকে ধন্যবাদ।’ 

যৌনতার প্রস্তাব দেওয়ার স্ক্রিনশট প্রকাশ করে সেই তরুণী অভিযোগ করেছিলেন, ‘অমিতাভ রেজা চৌধুরী! তাঁর ফ্যান ফলোয়ারের অভাব নাই নিশ্চয়ই। আয়নাবাজি দেখার পর আমিও তাঁর মোটামুটি ফ্যান বলা চলে। কয়েক বছর হলো উনি আমার লিস্টে রয়েছেন। কয়েকবার আলাপ হয়েছে ক্যাম্পাস লাইফ নিয়ে। আজ হঠাৎ আমার ডে’র ক্লিভেজ বের করা ছবি দেখে আমাকে নক দেন তিনি (যেটা আমি প্রথমে খেয়াল করিনি)। তারপর শুটের অফার দিল এবং বাকি কথা সব স্ক্রিনশটে দেওয়া আছে। দ্যাখেন! যারা বলছে এটা তার ফেক আইডি, তার ভেরিফায়েড আইডি আছে তাদের জন্য ব্রো তার সাথে আমার ভিডিও কলেও কথা হয়েছে, যার স্ক্রিনশটও দিলাম। তার দুটি আইডিই আমার লিস্টে ছিল। এরপর সে আমাকে শুটের জন্য অনেক কিছু বলল; বাংলালিংকের বিশাল শুট, বিলবোর্ড হবে ব্লা ব্লা। তারপর শর্ত হিসেবে বলল, আজকে প্রডিউসারের সঙ্গে সেক্স করতে হবে! না করে দিলাম, যার কারণে দুইটা আইডি থেকেই আনফ্রেন্ড মারল।

এরপর গত ১৪ সেপ্টেম্বর অন্য একটি পোস্টে তিনি লিখেন, ‘আমি সুমাইয়া অনন্যা ৯ সেপ্টেম্বর  অমিতাভ রেজা নামক আইডি ও সেক্সুয়াল হ্যারেজমেন্ট সম্পর্কিত যে অভিযোগ করেছিলাম সে বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। সাইবার ক্রাইম ইউনিট সময় নিয়েছে।  সেই সময়ের জন্য আপাতত আমি আমার অভিযোগের পোস্টটি অনলি মি করছি। ধন্যবাদ।’

তরুণীর নতুন পোস্টের পর অনেক সোশ্যাল সাইট ব্যবহারকারী ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন। কোনো যাচাই বাছাই না করে অমিতাভ রেজার মতো খ্যাতিমান একজন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে তাকে হেয় করার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তারা। অনেকেই এটাকে আলোচিত হওয়ার কৌশল হিসেবে দেখছেন।

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close