ধর্ষণের পর কিশোরীর আত্মহত্যা, ভিডিও বার্তায় ধরা পড়লো ধর্ষক

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

ধর্ষণের পর অপমান থেকে বাঁচতে আত্মহত্যা করলো নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী। ভারতের বীরভূমের নানুর নামক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। আত্মহত্যার আগে ওই কিশোরী একটি ভিডিও বার্তায় অপরাধীর কথা বলে যায়। সেই ভিডিও গ্রামে ছড়িয়ে পড়তেই তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়। পরে ভিডিও দেখে অভিযুক্ত প্রতিবেশী তথা নানুরের নতুনগ্রাম হাইস্কুলের কর্মী উৎপল মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করেছে মুরারই থানার পুলিশ। 

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, নানুরের মহুরাপুর হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রীটি শনিবার রাতে টিউশন পড়ে বাড়ি ফিরছিল। রাত ৯টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে উৎপল নামের এক তরুণ নিজের বাড়ির কাছে তার পথ আটকায়। পরে উৎপল তাকে জোর করে অন্ধকারে নিয়ে গয়ে ধর্ষণ করে বলে মেয়েটি মারা যাওয়ার আগে জবানবন্দিতে জানিয়েছে। 

ওই কিশোরীর বাবা বলেন, ‘মেয়েকে দেখে আমরা বুঝতে পারিনি। প্রতিদিনের মতো বাড়ি ফিরে রাতের খাবার খেয়ে শুতে যায়। ঘরে গিয়ে অপমানে বিষপান করে। এরপর যন্ত্রণায় ছটফট করলে ছুটে যাই। তখন সেই নির্মম অত্যাচারের কথা বলে মেয়ে।’ 

এদিকে, বিষপানের পর রাতেই ছাত্রীকে মুরারই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। 

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close