গোলাপগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি:

গত ৭ আগষ্ট শুক্রবার দুপুর ২টায় গোলাপগঞ্জের ঢাকাদক্ষিণ ইউপির পশ্চিম বারকোট গ্রামে জমি সংক্রান্ত জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ২ মহিলা সহ ৩জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বিকেলে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী আব্দুল বারিক।
হামলার ঘটনায় আহতরা হলেন বারকোট গ্রামের আব্দুল বারিকের স্ত্রী রিতা বেগম (৫০), বারিক আলীর ভাতিজি রুমা বেগম (৩০) ও ভাতিজা জাহাঙ্গীর আলম (২২)।
অভিযোগে পশ্চিম বারকোট গ্রামের ওজু রহমানের পুত্র মাছুম আহমদ (৪০), সুমন আহমদ (৩০), আপ্তাব আলীর পুত্র আবু তাহের (৪০), মৃত মছব আলীর পুত্র শাহান আহমদ (৩০), মৃত ফরিজ আলীর পুত্র লুৎফুর রহমান লুতু (৫০) মৃত মনির আলীর পুত্র দুদু মিয়া (৫৫) সহ আরো ৫/৬ জনকে অভিযুক্ত করা হয়।
মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বারকোট গ্রামের আব্দুল বারিকের সাথে একই গ্রামের ওজু রহমানের পুত্র মাছুম আহমদ ও সুমন আহমদ গংদের সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার (৭আগস্ট) দুপুরে মাছুম আহমদ ও সুমন আহমদ গংরা আব্দুল বারিকের বাড়িতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় তাদের হামলায় আব্দুল বারিকের স্ত্রী রিতা বেগম, ভাতিজা জাহাঙ্গীর আলম ও ভাতিজি রুমা বেগম আহত হন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। আহতদের তাৎক্ষণিক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।
এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী আব্দুল বারিক বলেন, আমি একি গ্রামের প্রবাসী ছমির উদ্দিন ও নুর উদ্দিনের জমিতে বর্গা চাষ করি। এতে বিবাদীগণ বিভিন্ন সময় আমায় ভয়ভীতি প্রদর্শন করতো। আমি স্থানীয় ইউপি সদস্য সহ মুরব্বিদের অবগত করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে ব্যার্থ হই। শুক্রবার জুমার নামাজে ছিলাম। এই সুযোগে মাছুম আহমদ ও সুমন আহমদ গংরা বাড়িতে এসে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা করে আমার স্ত্রী ভাতিজা ও ভাতিজিকে আহত করে।
এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদ চৌধুরী অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগটির তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close