মুম্বাই পুলিশের মন্তব্য,যন্ত্রণাহীন মৃত্যুর উপায় খুঁজেছিলেন সুশান্ত

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

মৃত্যুর আগে বারবার নিজের নাম গুগল করেন সুশান্ত সিংহ রাজপুত। যন্ত্রণা সহ্য না করে কিভাবে নিজেকে শেষ করে দেওয়া যায়, ইন্টারনেটে সেই প্রশ্নেরও উত্তর খুঁজেছিলেন তিনি। অভিনেতার মৃত্যু নিয়ে দেড় মাস ধরে তদন্ত চালিয়ে সোমবার এমনটাই জানাল মুম্বাই পুলিশ। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

মুম্বাই পুলিশের দাবি, সুশান্ত বাইপোলার ডিসঅর্ডারে ভুগছিলেন। তাঁর জন্য চিকিৎসা চলছিল তাঁর। তিনি ওষুধও খাচ্ছিলেন। সুশান্ত বাইপোলার ডিসঅর্ডারে ভুগছিলেন বলে এর আগে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছিলেন এ অভিনেতার চিকিৎসক। কিন্তু তাঁর পরিবার এবং তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা তা মানতে রাজি হননি। বরং প্রকাশ্যে এ ধরনের মন্তব্য করে ওই চিকিৎসক রোগীর গোপনীয়তা ভঙ্গ করেছেন বলে অভিযোগ করেন তাঁরা। কিন্তু সুশান্তের চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং সব দিক খতিয়ে দেখে তিনি বাইপোলার ডিসঅর্ডারে ভুগছিলেন সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই বলে জানিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। 

সাংবাদ সম্মেলনে মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনার পরম বীর সিংহ বলেন, এখন পর্যন্ত ৫৬ জনের বয়ান রেকর্ড করেছি আমরা। কাজের জায়গায় রেষারেষি, টাকা-পয়সার লেনদেন, স্বাস্থ্য- সব দিকই খতিয়ে দেখছি। এ যাবৎ তদন্তে যা উঠে এসেছে, তাতে জানা গেছে, বাইপোলার ডিসঅর্ডারে ভুগছিলেন সুশান্ত সিংহ রাজপুত। তার  চিকিৎসা চলছিল তাঁর। ওষুধও খাচ্ছিলেন। তবে কোন পরিস্থিতিতে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হলো তাঁকে, তা তদন্ত করে দেখছি আমরা।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close