সুশান্তের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুপার হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেছিল সন্দীপ সিং!

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই সংবাদমাধ্যমের সামনে বারবার এসে হাজির হয়েছেন সন্দীপ এস সিং। যিনি কিনা নিজেকে সুশান্ত ও অঙ্কিতার ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলে দাবি করেছেন। সুশান্তের মৃত্যুর পর বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও ফুটেজে সুশান্তের দিদি নীতুর সঙ্গে দেখা গেছে সন্দীপ সিংকে। 

অথচ সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় সংবাদ চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সুশান্তের এক পারিবারিক বন্ধু জানিয়েছেন, সন্দীপকে সে অর্থে অভিনেতার পরিবারের কেউই চেনেন না!

যদিও সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে তাঁর ফ্ল্যাট, দেহ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়ার সময়, শেষকৃত্য অনুষ্ঠান- সর্বত্রই দেখা গিয়েছে প্রযোজক সন্দীপ সিংকে। এমনকি সন্দীপ সুশান্তের পাটনার বাড়িতে আয়োজিত স্মরণসভায়ও গিয়ে হাজির হয়েছিলেন। সর্বভারতীয় সংবাদ চ্যানেলে বসে সুশান্তের পারিবারিক বন্ধুর অভিযোগ, এই সব কিছুই সন্দীপ নিজের প্রচারের জন্য করেছেন। ও কে সেটাও সুশান্তের পরিবারের কেউ-ই জানেন না।

এখানেই শেষ নয়, ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বসে সুশান্তের পারিবারিক ওই বন্ধুর অভিযোগ, এই সন্দীপ সিংই কিন্তু লাশ ময়নাতদন্তে কুপার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার প্ররোচনা দিয়েছিল। সুশান্তের অন্য বন্ধুদের জিজ্ঞাসা করলেই জানতে পারবেন, তাঁরা কেউ-ই এই সন্দীপ সিংকে চেনে না। হতে পারে ও বহু বছর আগে সুশান্ত-অঙ্কিতার বন্ধু ছিল। তবে গত দু’বছরে ওকে আমরা কেউ দেখিনি। সন্দীপ সুশান্তের মৃত্যুর পর তাঁর ফ্ল্যাটে পৌঁছে ও সব কিছু পর্যবেক্ষণে রাখছিল। সিদ্ধার্থ পিঠানিসহ অন্যরা যাঁরা ফ্ল্যাটে সেই সময় পৌঁছেছিলেন, তাঁদের সবাইকে বিভিন্ন নির্দেশ দিতেও দেখা গেছে সন্দীপকে। আর এ কথা আমি পিঠানির মুখেই শুনেছি।

সন্দীপ সিং সুশান্তের মৃত্যুর পর একাধিকবার নিজের বয়ান বদলেছেন বলেও অভিযোগ করেন সুশান্তের ওই পারিবারিক বন্ধু। প্রসঙ্গত, সন্দীপ সিং অবশ্য সুশান্তের মৃত্যুর পর সুশান্ত অঙ্কিতার সঙ্গে নিজের একাধিক ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। সুশান্তকে নিয়ে তাঁর একটি ছবি বানানোর কথা ছিল বলেও দাবি করেন সন্দীপ।

— সূত্র ::— জিনিউজ

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close