৮৪ নারীকে ধর্ষণের পর নৃশংসভাবে হত্যা

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

অন্তত ৮৪ জন নারীকে হত্যা করেছেন তিনি। তাদের কাউকে হাতুড়ির আঘাতে আবার কাউকে ছুরি মেরে। জানা গেছে, অনেককে কুঠার দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন এবং কাউকে প্রাণে মেরেছেন শ্বাস রোধ করে। বিশ্বের সবচেয়ে নৃশংস এই সিরিয়াল কিলারের নাম মিখাইল পোপকভ। 

রাশিয়া পুলিশের সাবেক সদস্য মিখাইল ১৮ বছর থেকে ৫০ বছর বয়সী নারীদের ধর্ষণের পর খুন করতেন। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে গেছে। সেই ভিডিওতে রয়েছে হাড়হিম করে দেওয়া স্বীকারোক্তি। কেন, কবে, কিভাবে তিনি নারীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছেন, সে ব্যাপারে তার বর্ণনা রয়েছে ওই ভিডিওতে। 

১৯৯২ সাল থেকে ২০১০ পর্যন্ত ৮৪ জন নারীকে হত্যা করেছের মিখাইল। আপাতত পুলিশের হিসাব সেটাই বলছে। যদিও এই নৃশংস সিরিয়াল কিলার নিজে ৮১ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। 

মিখাইলের হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করা কর্মকর্তা এবচের্জেবস্কি সন্দেহ করছেন, এখন পর্যন্ত মিখাইল অন্তত দু’শ জনকে হত্যা করেছেন। মিখাইলকে জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশ আরো অনেক তথ্য পেয়েছে। তবে জিজ্ঞাসাবাদের মুখেও মিখাইল মোট কতজনকে খুন করেছেন, তা জানাতে অস্বীকার করেছেন। 

২০১৫ সালে মিখাইলের ওপর ২২ জন নারীকে হত্যার অভিযোগ ছিল। কিন্তু পরে তিনি আরো ৫৯ জন নারীকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। এর মধ্যে একজন পুলিশ রয়েছেন।

সূত্র : গার্ডিয়ান

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close