শ্রমিক নেতা মোঃ ইকবাল হোসেন রিপন হত্যায় জড়িত আসামী তারেক আহমদ (২১) গ্রেফতার

গত ১০/০৭/২০২০ তারিখ রাত অনুমান ১০.০৫ ঘটিকায় দক্ষিণ সুরমা থানার ভাবনা পয়েন্টে ভাবনা রেষ্টুরেন্টের সামনে পূর্ব শত্রুতার জেরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দুষ্কৃতিকারীরা ধারালো অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে সিলেট বিভাগীয় ট্যাংক লরির শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো: ইকবাল হোসেন রিপন কে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় তার সঙ্গীয় বাবলা তালুকদারকে কুপিয়ে আহত করলে তিনি দৌড়ে পালিয়ে প্রাণ রক্ষা করেন। দুষ্কৃতিকারীগন ঘটনা ঘটিয়ে ঈঘএ অটো রিক্সা ও মোটরসাইকেল যোগে দ্রুত পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত শ্রমিক নেতা মো: ইকবাল হোসেন রিপন কে লোকজন চিকিৎসার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়া গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। এই হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী ফারজানা আক্তার তমা ঘটনায় ১৩ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরো ৫/৭ জনের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করলে দক্ষিণ সুরমা থানার মামলা নং-০৯, তাং-১১/০৭/২০২০খ্রিঃ রুজু করা হয়। ঘটনার পরপর পুলিশ এজাহারনামীয় আসামী নোমান আহমদ ও ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সাদ্দাম হোসেন কে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করে। ইতোমধ্যে জনাব মোঃ সোহেল রেজা-পিপিএম, উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ), এসএমপি, সিলেট এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় এসএমপির দক্ষিণ বিভাগের চৌকস অফিসারদের সমন্বয়ে গঠিত একটি টিম ইকবাল হোসেন রিপন হত্যায় জড়িত দুষ্কৃতিকারীদের বহনকারী সিএনজি অটো রিক্সা চালক আসামী মো: তারেক আহমদ (২১), পিতা-মো: আফজল মিয়া, মাতা-মোছা: ডলি বেগম, সাং-ধলাইপাড়া, থানা-কমলগঞ্জ, জেলা-মৌলভীবাজার, এ/পি সুনামপুর, বরইকান্দি ১নং রোড, বজলু মিয়ার বাড়ী, থানা-দক্ষিণ সুরমা, জেলা-সিলেট কে ১৪/০৭/২০২০ তারিখ সন্ধ্যায় বরইকান্দি এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত তারেক আহমদ ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। তাকে অদ্য বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

— প্রেস বিজ্ঞপ্তি ।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close