বিএনপি নেতা এমএ হক আইসিইউতে

সুরমা টাইমস ডেস্কঃ সিলেটের প্রবীণ বিএনপি নেতা এমএ হক আইসিইউতে। দিন দিন শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে। এ কারণে তাকে নিয়ে চিন্তিত চিকিৎসকরা। আইসিইউতে নিয়ে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। তারা জানিয়েছেন- এমএ হকের নানা উপসর্গ রয়েছে। তার শারীরিক পরীক্ষা প্রয়োজন। করোনা টেস্টের জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হচ্ছে। এমএ হক বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা । বর্তমানে সিলেট বিএনপি’র অভিভাবকদের মধ্যে একজন তিনি। ছিলেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সিলেট জেলা ও মহানগরের সভাপতিও। একজন ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি প্রতিষ্ঠিত। একজন অভিভাবক হিসেবে সিলেটে পরিচিত।

পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে- করোনাকালীন সময়ে নগরীর যতরপুরস্থ বাসায়ই ছিলেন এমএ হক। ত্রাণ কার্যক্রম সহ দলীয় কার্যক্রমের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত করে রেখেছিলেন। এর মধ্যে ক’দিন ধরে তিনি নিউমুনিয়ায়ও ভুগছিলেন। এর বাইরেও নানা উপসর্গ রয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে নগরীর নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে করোনা ইউনিটে রেখেই তাকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছিলো। বুধবার মধ্যরাতে তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি ঘটে। এ কারণে চিকিৎসকরা তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করেন।

বয়োবৃদ্ধ এই নেতার শারীরিক অবস্থা নিয়ে কিছুটা চিন্তিত নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী। তিনি গতকাল গণমাধমকে জানিয়েছেন- এমএ হকের শারীরিক অবস্থা কিছুটা সংকটাপন্ন। এ কারণে বুধবার মধ্য রাতে তাকে আইসিইতে নেয়া হয়েছে। এখন তিনি সেখানেই আছেন। কিন্তু তিনি করোনা কিংবা বুকের এক্স-রে করাতে আগ্রহী হচ্ছেন না। এসব পরীক্ষা না করালে পরীক্ষা দেয়াও সম্ভব হচ্ছে না। এদিকে- এমএ হকের শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিন্তিত বিএনপি নেতারাও। সিলেট মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী জানিয়েছেন- এমএ হককে আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। তাকে প্রতি মিনিটে ১০ লিটার অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে অক্সিজেন স্বাভাবিক রাখা হচ্ছে। তিনি বলেন, তার করোনা টেস্টের জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হবে। বয়সের কারণে তিনি শারীরিক নানা সমস্যা রয়েছে। তাই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা তাকে ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এমএ হকের পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছেন।

আবু নসরকে ওসমানীতে স্থানান্তর: সিলেটের প্রবীণ নেতা ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এডভোকেট আবু নসরকে নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বুধবার রাতে পরিবারের স্বজনরা তাকে সকালে ওসমানীতে নিয়ে যান। হাসপাতালের ৩য়তলার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের ১৭ নং কেবিনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। পারিবারিক সূত্র জানায়- এডভোকেট আবু নসর দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছেন। তার বয়স প্রায় ৯০ বছর। এ কারণে তার শরীরে নানা উপসর্গ রয়েছে। তবে- করোনার উপসর্গ তেমনটি নেই। এরপরও তার করোনা টেস্ট করা হচ্ছে বলে জানান স্বজনরা।

এডভোকেট আবু নসরকে দেখতে গতকাল সিলেট আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। এডভোকেট আবু নসর সিলেটের আওয়ামী রাজনীতির এক আলোকিত নেতা। দীর্ঘদিন তিনি সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। দুর্দিনে দলের একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে কাজ করেন। বার্ধক্যজনিত কারণে একযুগ আগে থেকে তিনি আড়ালে চলে যান। তবে- তার পরামর্শের জন্য দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা বাসায় ছুটে যান। আবু নসরের রোগমুক্তি কামনা করেছেন সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close