বড়লেখায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা,আটক ০১

বড়লেখা প্রতিনিধি::

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পাঁচজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন মন্ত্রী ও জাতির জনককে নিয়ে কটূক্তি ও ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রচারের অভিযোগে পাঁচ জনের বিরুদ্ধে এই মামলা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৮ই জুন) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বড়লেখা থানায় মামলা করেন ছাত্রলীগ বড়লেখা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জুনেদ আহমদ।

এ মামলায় মো. দেলোয়ার হোসেন (২৮) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৮ই জুন) রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেলোয়ার হোসেন উপজেলার নিজ বাহাদুরপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে। আজ শুক্রবার তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া মো. দেলোয়ারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরকারের অনেক মন্ত্রীসহ জাতির জনককে নিয়ে নানারকম কটূক্তি ও ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রচারের অভিযোগ করা হয়। মামলার অন্য আসামিরা হচ্ছেন- রুমেল আহমদ (৩৫), মুহিবুর রহমান (২৮), সৈয়দ আদনানুল হক (২৭) ও আসুক আহমদ (৩০)। মো. দেলোয়ার হোসেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ওই মামলার পাঁচ নম্বর আসামি। সবার বাড়ি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায়।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্তরা গত ১০ই জুন থেকে ১৬ই জুন পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে রাষ্ট্র, সরকার, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীর নামে মিথ্যা, বিভ্রান্তিমূলক স্ট্যাটাস, ভিডিও আপলোড ও শেয়ার করেছেন। এতে সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টির উস্কানি দিয়ে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করা হয়েছে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে সদ্য প্রয়াত কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, ধর্মমন্ত্রী ধর্মমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ, সিলেটের সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের নামে ফেসবুকে বিভ্রান্তিমূলক স্ট্যাটাস, ভিডিও আপলোড ও শেয়ার করার অভিযোগ আছে। এর প্রতিবাদে গত সোমবার (১৫ই জুন) রাত সাড়ে ৮টায় মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগে বড়লেখা উপজেলা যুবলীগ-ছাত্রলীগ পথ সভা করে।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে শুক্রবার (১৯ জুন) বিকেলে মুঠোফোনে বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটূক্তি ও ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রচার করায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ৫ জনের নামে মামলা হয়েছে। এ আইনের মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামিকে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close