কমলগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতা হত্যা মামলার প্রধান আসামি আটক

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা আলতা মিয়া হত্যাকান্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি ইব্রাহিম মিয়াকে প্রায় দুইমাস পর আটক করেছে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ।

সোমবার (৮জুন) বিকাল ৬টায় কালেঙ্গা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। ইব্রাহিমের বাড়ি উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামে। ওসি আরিফুর রহমানে নির্দেশে এসআই আয়াছ আহমদ, এসআই শহিদুল ইসলাম ও এএসআই হামিদুর রহমান গোপন সংবাদ পেয়ে রহিমপুর ইউনিয়নের কালেঙ্গায় অভিযান চালিয়ে ইব্রাহিমকে আটক করেন।

উল্লেখ্য, গত এপ্রিল মাসের ৫ তারিখ রাতে মির্তিঙ্গা চা বাগানে একটি দোকানে টিভি দেখে পায়ে হেটে পার্শ্ববর্তী রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আলতা মিয়া। রাত অনুমানিক ১০ টার দিকে মির্তিঙ্গা খেয়াঘাট খেলার মাঠের পাশের নির্জন স্থানে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় দুই পথচারী মাঠের পাশে আওয়ামী লীগ নেতা আলতাকে রক্তাত্ব অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে হাল্লা-চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিলেট রেফার্ড করা হয়। পরে আশংকাজনক অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের ছেলে সুমন মিয়া। পুলিশ মামলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে। তদন্তের সূত্র ধরে ইব্রাহিমকে মূল হোতা হিসাবে চিহ্নিত হয়। এর আগে আরেকজনকে আটক করেছিল পুলিশ।

কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান বলেন, দীর্ঘ তদন্তে আলতা মিয়ার হত্যার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে আটক করা হচ্ছে। ইব্রাহিম মিয়াকে মূল হোতা সন্দেহে আটক করা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close