মাছ ধরতে গিয়ে গোলাপগঞ্জে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু

নুরুল ইসলাম নাহিদ এম,পির সমবেদনা

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি:

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার (৭ জুন) ভোরে এ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- উপজেলার কালিকৃষ্ণ পুর গ্রামের মৃত মুনশি মিয়ার ছেলে বাবুল মিয়া (৩০), ইসলামপুর গ্রামের রবি উল্লা মিয়ার ছেলে আব্দুস সালাম (৩১)।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানায়, রবিবার সকালে তারা দুজন হাকালুকি হাওরে লম্বাবিলে চিমটি জাল দিয়ে মাছ ধরতে যায়। এ সময় বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই দুজন নিহত হয়। দুপুর পর্যন্ত তারা ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন খোঁজ করতে গিয়ে হাকালুকি হাওরের লম্বা বিল থেকে বাবুলের ঝলসানো লাশ পাওয়া যায়। পাশে ক্ষতিগ্রস্থ নৌকাটি পাওয়া গেলেও আবুল কালামকে পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসী আবুল কালামের সন্ধানে হাওরে তল্লাশী চালিয়ে আজ লাশ দুপুরে উদ্ধার করেন। দুপুর ২ টা ৩০ মিনিটে জানাজা শেষে কালীকৃষ্ণ গ্রামের স্থানীয় গ্রামে লাশ দাফন করা হয়।
গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান নিখোঁজ ব্যাক্তির লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হাওরে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে তারা মারা গেছে। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয় গোরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান বলেন, সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এম,পির সাথে এ বিষয়ে কথা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহায়তা প্রদানের নির্দেশনাও দেন তিনি। প্রতিটি পরিবারকে বিশ হাজার করে মোট চল্লিশ হাজার টাকা সহায়তা করা হবে বলে জানান।
এদিকে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এম,পি তাদের পরিবারের খোঁজ খবর নেন এবং সমবেদনা জানান। এবং নিহতের দুই পরিবারকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে বলে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ প্রতিবেদকে জানিয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close