এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ কর্তৃক এক (০১) জন ছিনতাইকারী আটক

গত ০৩/০৬/২০২০খ্রিঃ তারিখ রাত অনুমান ১১.৩০ ঘটিকার সময় জনৈক আবু সুফিয়ান (২২), পিতা-মুনির হোসেন, সাং-পালাখাল, থানা-কচুয়া, জেলা-চাঁদপুর, বর্তমানে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম, পূর্ব শাহী ঈদগাহ, থানা-এয়ারপোর্ট, জেলা-সিলেট ঢাকা হইতে শ্যামলী পরিবহনে সিলেটে আসিয়া এয়ারপোর্ট থানাধীন পূর্ব শাহী ঈদগাস্থ বাণিজ্য মেলায় তাহার বিছমিল্লাহ ফুডের দোকানে ০৪/০৬/২০২০খ্রিঃ তারিখ সকাল অনুমান ০৬.১৫ ঘটিকার সময় যাওয়া কালে তিনি ১নং গেইট দিয়ে প্রবেশ করিতে চাহিলে ১নং আসামী আব্দুর রাজ্জাক তাহাকে বাগানের পিছনের গেইট দিয়ে মেলায় প্রবেশ করার জন্য বলে। আবু সুফিয়ান (২২) তাহার কথায় মেলার পিছনের গেইটে গেলে উল্লেখিত ১নং আসামী ও তাহার সহযোগী আসামী ২। সাদেক (২৭), পিতা-অজ্ঞাত, সাং- পূর্ব শাহী ঈদগাহ, টিবি গেইট, অনামিকা ১নং গলি, থানা-কোতয়ালী, জেলা-সিলেট, ৩। মোঃ শাহ আলম (৪৩), পিতা-মৃত আনা মিয়া, সাং-কুমারপাড়া, ঝর্ণারপাড়, থানা-কোতয়ালী, জেলা-সিলেট, ৪। টিকল (২০), পিতা-অজ্ঞাত, সাং-দলদলি চা-বাগান, থানা-এয়ারপোর্ট, জেলা-সিলেট সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৬/৭ জন আমাকে চাকু ও অস্ত্রের ভয় দেখাইয়া আতংক ও ত্রাস সৃষ্টি করিয়া উল্লেখিত ব্যক্তি আবু সুফিয়ান (২২) এর নিকটে থাকা তাহার ব্যবহৃত ০২টি মোবাইল ফোন যাহার মধ্যে ০১টি কালো রংয়ের জবফসর-৭ ও ০১টি কালো রংয়ের নকিয়া মোবাইল এবং তাহার মানিব্যাগের মধ্যে থাকা নগদ ৫,০০০/-টাকা সহ তাহার আইডি কার্ড ও দোকানের অন্যান্য কাগজপত্র জোর পূর্বক ছিনাইয়া নেয়। তখন তিনি শোরচিৎকার করিলে আশেপাশের লোকজন আগাইয়া আসিতে থাকিলে আসামীগণ দৌড়াইয়া দ্রুত বাগানের দিকে পালিয়ে যায়। পরে উপস্থিত লোকজন সহ উল্লেখিত বাণিজ্য মেলা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করিয়া মেলা কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ভিডিও ফুটেজ দেখে ৩নং আসামী মোঃ শাহ আলম (৪৩), পিতা-মৃত আনা মিয়া, সাং-কুমারপাড়া, ঝর্ণারপাড়, থানা-কোতয়ালী, জেলা-সিলেট কে সনাক্ত করতঃ এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ গত ০৪/০৬/২০২০খ্রিঃ তারিখ রাত অনুমান ০৯.০০ ঘটিকার সময় শাহী ঈদগাহ টিবি গেইট এলাকা হইতে তাহাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে আবু সুফিয়ান (২২) এজাহার দায়েরের প্রেক্ষিতে এয়ারপোর্ট থানার মামলা নং-০৫, ধারা-আইন-শৃঙ্খলা বিঘœকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) ৪/৫ রুজু করা হয়। উল্লেখ্য যে, এছাড়াও উক্ত আসামীর বিরুদ্ধে এসএমপি, সিলেট এর কোতয়ালী মডেল থানার মামলা নং-২৫/৪৯৩ ধারা-৪১৩ পেনাল কোড এবং ডিএমপি’র সবুজবাগ থানার মামলা নং-২৩/১৮৪ ধারা-৪৫৪/৩৮০/৪১১ পেনাল কোড রহিয়াছে বলে জানা যায়।

— প্রেস বিজ্ঞপ্তি ।।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close