‘করোনা’: সিলেটের ১১ থানায় ডিসইনফেক্ট টানেল স্থাপন

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

করোনাভাইরাস হতে পুলিশ সদস্য এবং জনসাধারণ কে সুরক্ষিত রাখার অংশ হিসেবে সিলেটের পুলিশ সুপার কার্যালয় সহ এগারটি থানায় স্বয়ংক্রিয় ডিসইনফেক্ট টানেল স্থাপন করল সিলেট জেলা পুলিশ।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম’র পরিকল্পনা ও উদ্যোগে সোমবার (১ জুন) পুলিশ সুপার কার্যালয় সহ জেলার এগারটি থানায় একযোগে সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় এই ডিসইনফেক্ট টানেল স্থাপন করা হয়।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখার সাথে সাথে এর সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরি সহ কোয়ারেন্টাইন, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা আক্রান্ত অসুস্থ রুগীদের হাসপাতাল প্রেরণসহ নানাবিধ কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ। এছাড়াও লকডাউনের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে পুলিশের নিজস্ব উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করে যাচ্ছে পুলিশ। করোনাকালে পুলিশের এরকম মানবিক কাজ যেন পুলিশ সম্পর্কে মানুষের ধারনা একেবারেই পাল্টে গেছে। মানুষের জন্য এসব কাজ করতে গিয়ে নিজের অজান্তেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যাচ্ছে পুলিশ। সারা দেশে ইতিমধ্যেই পাঁচ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। শাহাদত বরন করেছে পনের জন পুলিশ সদস্য।

এরই ধারাবাহিকতায় সিলেট জেলা পুলিশে কর্মরত প্রায় পঞ্চাশের ঊর্ধ্বে পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের সুচিকিৎসার পাশাপাশি অন্যান্য সদস্যদের সুরক্ষিত রাখতে ইতিমধ্যেই নানাবিধ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে জেলা পুলিশ। পুলিশ সদস্যদের মনোবল চাঙ্গা রাখতে কখনও পুলিশ সুপার নিজে কিংবা অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গন নিয়মিত প্রত্যেকটি থানায় পুলিশ সদস্যদের ব্রিফ করেছেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বারাতে ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ ফলমূল পুলিশ সদস্যদের মাঝে বিতরণ করেছে। অফিস, ব্যারাক পরিষ্কার রাখা সহ পর্যাপ্ত সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছে মর্মে পুলিশের একটি সূত্রে জানা যায়।

সামগ্রিক বিষয় নিয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম জানান, বর্তমান প্রেক্ষাপটে জনগণকে সুরক্ষিত রাখা সহ পুলিশ সদস্যদের নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। পুলিশ সদর দপ্তর সহ জেলা পুলিশের উদ্যোগে ইতিমধ্যে পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষিত রাখতে ইতিমধ্যে পর্যাপ্ত সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা হচ্ছে। পুলিশের নিকট আগত সেবা প্রত্যাশীদের সুরক্ষিত রাখতে পাশাপাশি প্রত্যেক পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষিত রাখতে প্রতিটি থানা সহ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে ডিসইনফেক্ট টানেল স্থাপন করা হল। পুলিশের সর্বোচ্চ সামর্থ্য দিয়ে চলমান করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জনগণের পাশে থাকবে বলে যোগ করেন তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close