কানাইঘাটের সুরমা বেড়ি বাঁধ পরিদর্শনে পাউবো কর্মকর্তারা

কানাইঘাট প্রতিনিধি::

কানাইঘাট সুরমা ও লোভা নদীতে পানি বাড়ার সাথে সাথে বিভিন্ন এলাকায় সুরমা বেড়ি বাঁধে ভাঙন দেখা দিয়েছে। লোভা নদীর দুই তীর থেকে বড় বড় গর্ত করে শুকনো মৌসুমে অপরিকল্পিতভাবে পাথর উত্তোলনের কারণে লোভা নদীতে পাহাড়ী ঢল নামার সাথে সাথে এমন ভাঙন দেখা দেয়। সুরমা নদীর বিভিন্ন এলাকায় এভাবে ভাঙনের খবর পাওয়া গেছে।

কানাইঘাট সাতবাঁক ইউপির চরিপাড়া গ্রামের সুরমা ডাইকের চরিপাড়ী (রঃ) এর বাড়ী সংলগ্ন এলাকায় ঝুকিপূর্ণ নদী ভাঙনের স্থান আজ বুধবার পরিদর্শন করেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী খুশি মোহন সরকার।

এ সময় তার সাথে ছিলেন- পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শহিদুজ্জামান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাতবাঁক ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ পলাশ, সাতবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান, পানি উন্নয়ন বোর্ড সিলেট অফিসের সহকারী প্রকৌশলী রুবেল আহমদসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা চরিপাড়া এলাকার সুরমা বেড়ি বাঁধের গুরুত্বপূর্ণ ভাঙন এলাকা মেরামতে পদক্ষেপ নিবেন বলে জানান। মস্তাক আহমদ পলাশ এলাকায় পরিদর্শনে আসা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের সুরমা ও লোভানদীর গুরুত্বপূর্ণ ভাঙ্গন কবলিত এলাকা মেরামতে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দাবী জানান। এসময় ভাঙনরোধে তড়িৎ ব্যবস্থা না নিলে কানাইঘাটে ব্যাপক বন্যার আশংকা রয়েছে বলে তিনি পরিদর্শনে আসা কর্মকর্তাদের অবগত করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close