তাহিরপুরের সেই মুক্তিযোদ্ধা পেলেন অর্থ, পাবেন বাড়িও

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী র্দীঘ পাঁচ বছর যাবত প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে, নিজ বাড়িতে আছেন। টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না। মঙ্গলবার এমন সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ৫ হাজার ও সমাজসেবা কার্যালয় থেকে ৫ হাজার টাকা, চিকিৎসা ভাতা ১৮শত টাকাসহ প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর হাতে তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যনার্জি।

এসময় তিনি মুক্তিযুদ্ধার সার্বিক খোঁজ খবর নেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে একটি ঘর নির্মান করে দেওয়া হবে। আর উপজেলা প্রশাসন সব সময় পাশে আছে।

এসময় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার রফিকুল ইসলাম, তাহিরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক ডা. সুমন চন্দ্র বর্মন, সালাহ উদ্দিন মুনসহ স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক হোসোইন শরীফ বিপ্লব জানান, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ও দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে নিজ বাড়িতে শয্যাশায়ী মুক্তিযোদ্ধার পাশে দাঁড়ানোর জন্য ইউএনও সহ সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর সন্তান শাওন জানান, বুধবার ইউএনও ফোন দিয়ে সহায়তা করার আশ্বাস দিয়েছেন। চিকিৎসা ভাতাসহ আজ বুধবার (১৩ মে) নগদ ১১,৮০০ টাকাসহ খাদ্য সহায়তা পেয়েছি। আমার বাবা পাঁচ বছর যাবত প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে আছেন, টাকার অভাবে সুচিকিৎসা ও ঔষধ কিনতে পারছিলাম না। তা আমাদের অনেক উপকার হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি বলেন, বুধবার সংবাদ মাধ্যমে জানার পর মুক্তিযুদ্ধা সন্তানের সঙ্গে ফোনে কথা বলে খোঁজ নিয়ে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছি। মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর বিষয়ে আমাকে কেউ জানায় নি। জানালে আগেই সহায়তা করা হত।

প্রসঙ্গত, উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী দীর্ঘ পাঁচ বছর যাবত প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে, নিজ বাড়িতে আছেন। তার মুক্তিযোদ্ধা সনদ নং ১৮১০০৭, মুক্তিবার্তা নং(লাল বই)০৫০২০৮১১৮, গেজেট নং-৩১১২, মোবাইল নং-০১৯০৮৩১১৯২৬। টাকার অভাবে সুচিকিৎসা করতে পারছেন না। এদিকে অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ভাতা ১লাখ টাকা ৫৫ জনের মধ্যে প্রদান করা হলেও প্যারালাইসিস রোগে অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী পাঁচ বছর যাবত বিছানায় পরে থাকার পরও চিকিৎসা ভাতার তালিকাতে তার নাম নেই।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close