নগরী থেকে ছিনতাইকারী রুমন গ্রেফতার

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানাধীন সিলেট টু সুনামগঞ্জ রোডস্থ একটি ট্রাক আম্বরখানা পয়েন্ট সংলগ্ন রাস্তার উপর পৌছা মাত্রই ০২টি মোটরসাইকেলে অবস্থানরত ১। রুমন চৌধুরী (৩১), পিতা-কয়ছর চৌধুরী, সাং-আসামপুর, থানা-জগন্নাথপুর, জেলা-সুনামগঞ্জ, বর্তমানে পশ্চিম পীরমহল্লা (আফতাব কাউন্সিলর এর বাড়ীর পার্শ্বে), কুদ্দুস মিয়ার বাড়ী, থানা-এয়ারপোর্ট, জেলা-সিলেট মোবাইল নং-০১৩০৭-৪৮৬৫৭১), ২। সাব্বির খান (৩২), পিতা-খলিল খান, সাং-আখালিয়া নয়াবাজার, থানা-জালালাবাদ, জেলা-সিলেট সহ অজ্ঞাতনামা আরো ০২ জন আসামীগণ ট্রাকটি সিগন্যাল দিয়া থামাইয়া পুলিশ অফিসারের পরিচয় দিয়া ট্রাকের দরজা খুলিয়া ড্রাইভারের পার্শ্বে বসিয়া ধারালো ছোরা বাহির করিয়া ড্রাইভারকে ভয়ভীতি দেখাইয়া আতংক ও ত্রাস সৃষ্টি করে।

পরবর্তীতে ট্রাকটি জোর পূর্বক ছিনইয়া নিয়া যাওয়াকালে রাত অনুমান ০৩.০০ ঘটিকার সময় জালালাবাদ থানাধীন কালীবাড়ী পয়েন্ট নামক স্থানে পৌছিলে জালালাবাদ থানার টহলরত পুলিশ গাড়ীটি সিগন্যাল দিয়া থামায়। তখন ড্রাইভার গাড়ী হইতে নামিয়া কর্তব্যরত পুলিশ অফিসারকে ঘটনার বিষয়ে অবগত করিলে পুলিশ অফিসার তখন ১নং আসামী রুমন চৌধুরীকে আটক করিয়া তাহার নিকট হইতে ০১টি ধারালো ছোরা উদ্ধার করে। জালালাবাদ থানা পুলিশ অফিসার ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাক্ষীদের মোকাবেলায় ছিনতাইকৃত বর্ণিত ট্রাক এবং আসামী রুমন চৌধুরীর নিকট হইতে উদ্ধারকৃত ছোরা জব্দ করিয়া ধৃত আসামী ও জব্দকৃত আলামত সহ থানায় নিয়া যায়।

সংঘটিত ঘটনাটি এয়ারপোর্ট থানাধীন হওয়ায় পরবর্তীতে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ সংবাদ পাইয়া জালালাবাদ থানা হইতে ধৃত আসামী সহ জব্দকৃত আলামত এয়ারপোর্ট থানায় নিয়া আসেন। এ সংক্রান্তে এয়ারপোর্ট থানার মামলা নং-০২, তাং-০৩/০৩/২০২০খ্রিঃ, ধারা-আইন-শৃঙ্খলা বিঘœকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) সংশোধনী আইন ২০১৯ এর ৪/৫ রুজু করা হয়।

ধৃত আসামী রুমন চৌধুরী এর বিরুদ্ধে সিডিএমএস পর্যালোচনা করিয়া তাহার বিরুদ্ধে ১। সুনামগঞ্জ এর জগন্নাথপুর থানার মামলা নং-১৩, তাং-১৬/১০/২০০৮, জিআর নং-২৩০/০৮, ধারা-১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৬/৩০৭/৪২৭/১১৪ পেনাল কোড, ২। জগন্নাথপুর থানার মামলা নং-০১, তাং-০৩/০৩/২০০৬, জিআর নং-২৮/০৬, ধারা-৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩২৫/ ৩০৭/৩৭৯/৪২৭/১১৪ পেনাল কোড এ মামলা রহিয়াছে মর্মে প্রতীয়মান হয়।
উল্লেখ্য যে ট্রাকটি যাহার রেজিঃ নং-ঢাকা মেট্রোঃ-ইউ-১৪-২৬৮১ গত ০২/০৫/২০২০খ্রিঃ তারিখ রাত অনুমান ১১.৫০ ঘটিকার সময় এয়ারপোর্ট থানাধীন ছালিয়া সাকিনস্থ ফরহাদ স্টোন ক্রাশার হতে মালামাল লোড করে পরদিন ০৩/০৫/২০২০খ্রিঃ তারিখ রাত অনুমান ০২.০৫ ঘটিকার সময় এয়ারপোর্ট থানা এলাকা অতিক্রম করছিল। ট্রাক চালকের নাম মোঃ আব্দুর রহিম (৪০), পিতা-মৃত নছির আলী মন্ডল, সাং-দামুরহুদা, থানা-দর্শনা, জেলা-চুয়াডাঙ্গা, বর্তমানে সাং- বাসা নং-০৮, শেখেরটেক, শ্যামলী, ঢাকা। ট্রাকটি সিলেট হতে ঢাকার পথে রওয়ানা হচ্ছিল।

— প্রেস বিজ্ঞপ্তি ।।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close