‘করোনা’: মানবদেহে পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন প্রয়োগ

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

সারা বিশ্বে আতঙ্ক সৃষ্টি করা প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের একটি ভ্যাকসিন মানবদেহে পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে। ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্যে দুই জনের শরীরে এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হলো। ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীদের তৈরি এই ভ্যাকসিন সফল হলে বড় ধরনের এক বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেয়ে যাবে গোটা বিশ্ব। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, প্রাথমিকভাবে দুজনের শরীরে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মোট আটশ জন মানুষ এই পরীক্ষামূলক কাজে স্বেচ্ছায় অংশ নিয়েছেন। এই আটশ জনের মধ্যে অর্ধেককে কভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। আর বাকি অর্ধেককে করোনাভাইরাসের নয়, ম্যানিনজাইটিস প্রতিরোধক দেওয়া হবে।

তবে স্বেচ্ছায় অংশ নেওয়া এই কর্মীরা কেউই জানবেন না কোন ভ্যাকসিন তাদের শরীরে প্রয়োগ করা হচ্ছে, জানবেন শুধু ডাক্তাররা। যেখানে দুই গ্রুপের মানুষের মধ্যে আগামী কয়েকমাসে তুলনামূলক বিচার করে ভ্যাকসিনের কাজ হচ্ছে কি-না তা নির্ধারণ করবেন গবেষকরা।

ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন নেওয়াদের মধ্যে একজন হলেন এলিসা গ্রানাটো। তিনি বলেন, ‘আমি একজন বিজ্ঞানী, তাই যেভাবেই পারি গবেষকদের সাহায্য করতে চাই।’

অক্সফোর্ড বিজ্ঞানীদের এই ভ্যাকসিন তৈরির প্রচেষ্টায় সব ধরনের সহায়তা করেছে ব্রিটিশ সরকার। প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্রিটিশ সরকার বিজ্ঞানীদেরকে অতিরিক্ত ২০ মিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২০৯ কোটি টাকা) দেবে। সিএইচএডিওএক্স-১ এনকভ-১৯ নামের এই ভ্যাকসিনটি আজ সফলভাবে মানবদেহে প্রয়োগ করা হয়।

অক্সফোর্ড বিজ্ঞানীরা আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই ভ্যাকসিন চূড়ান্তভাবে মানবদেহে প্রয়োগের ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেছেন। এ জন্য ভ্যাকসিনটির কয়েক লাখ ডোজ তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন তারা।

সূত্র::— বিবিসি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close