সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে ৬ হাজার পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ উপহার

কোম্পানীগঞ্জ সংবাদদাতা::

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কারণে ঘরবন্দি কর্মহীন ছয় হাজার পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। গত কয়েকদিনে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের কর্মহীন ও দিনমজুর পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বিদ্যুৎ কান্তি দাস জানান, এখন পর্যন্ত আমরা এ উপজেলায় তিন ধাপে ৬২ মেট্রিক টন চাল ও ২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা বরাদ্দ পেয়েছি। এ বরাদ্দ থেকে ছয় হাজার হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে ১০ কেজি করে মোট ৬০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ৬৫৫ প্যাকেট খাদ্য সহায়তা (১০ কেজি চাল, ৫ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তেল ও ১ কেজি পেঁয়াজ) প্রদান করা হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমন আচার্য জানান, এই উপজেলায় তিন দফায় সরকারিভাবে ৬২ মেট্রিক টন চাল ও ২ লক্ষ ৫৩ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়েছে। এই সহায়তা থেকে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের কর্মহীন ও হতদরিদ্র ৬৫৫ পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি। এরপর চেয়ারম্যান-মেম্বারদের মাধ্যমে ছয় ইউনিয়নে ৬ হাজার পরিবারের মধ্যে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রতিটি ইউনিয়নে দুইজন করে ট্যাগ অফিসার দায়িত্ব পালন করেছেন।

ইউএনও বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে উপজেলার অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে ত্রাণ হিসেবে চাল ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি শিশুখাদ্য বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রথম ধাপে ১৭ হাজার টাকার দরিদ্র পরিবারের শিশুদের জন্য শিশু খাদ্য হিসেবে মিল্ক ভিটার গুড়োদুধ, বিস্কুট, সুজি, সাগু ও মানসম্মত রেডিমেট ফুড ইত্যাদি খাদ্য স্থানীয়ভাবে ক্রয় করে বিতরণ শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬শে মার্চ থেকে কার্যত কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা লকডাউন হয়ে আছে। ফার্মেসি আর নিত্যপণ্যের দোকান ছাড়া সব কিছু বন্ধ রয়েছে। মানুষকে ঘরে রাখতে চলছে নানা কার্যক্রম। এ অবস্থায় বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষগুলো। এ উপজেলায় ৬টি ইউনিয়নে পৌনে দুই লাখ মানুষের বসবাস। দিন এনে দিন খাওয়া লোকের হিসেব নেই। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে করোনাভাইরাস রোধ ও চলমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের দেয়া নির্দেশনা মানতে গিয়ে কর্মহীন হয়ে পড়েন এসব মানুষ।

এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে উপজেলার কর্মহীন ও হতদরিদ্র ৬ হাজার পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close