দেখা যাচ্ছে পদ্মাসেতুর ৪২০০ মিটার

২৮তম স্প্যান বসানোর মাধ্যমে বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মাসেতুর ৪২০০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে। শনিবার সকাল নয়টার সময় ২০ ও ২১ নম্বর পিয়ারের ওপর বসানো হয় পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে ২৮তম স্প্যান।এরআগে ২৮ মার্চ জাজিরা প্রান্তে বসানো হয়েছিল সেতুর ২৭তম স্প্যান। চলতি বছরের জুলাইয়ের মধ্যে ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো পরিকল্পনা রয়েছে কর্তৃপক্ষের।

২৮তম স্প্যানটি ছিল মুন্সিগঞ্জের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে। সেখান থেকে শুক্রবার ভাসমান ক্রেনে করে সেটি ভাসিয়ে নিয়ে আসা হয় ২০ ও ২১ নম্বর পিয়ার বরাবর। এরপর শুক্রবারের মধ্যে আনুষঙ্গিক কাজ শেষ করা হয়। শনিবার সকাল থেকেই শ্রমিক ও প্রকৌশলীরা মিলে স্প্যানটি পিলারের ওপর বসানোর কাজ শুরু করেন।স্প্যান বসানোর পাশাপাশি রোড স্ল্যাব ও রেল স্ল্যাব বসানোর কাজও চলছে। সেতুর জন্য বসবে আর মাত্র বাকি ১৩টি স্প্যান। এর মধ্যে বাংলাদেশে আছে ১১টি। দুটি স্প্যান এখনো চীনে রয়েছে। করোনাভাইরাসের প্রভাব কেটে গেলে ওই দুটি স্প্যান বাংলাদেশে আনা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

গত ৩১ মার্চ ২৬ নম্বর পিয়ারের কংক্রিটের ঢালাই কাজ সম্পন্ন হয়। এর মাধ্যমে শেষ হয় পদ্মা সেতুর পুরো ৪২টি পিয়ারের কাজ। এ ছাড়া উভয় প্রান্তে থাকা ৯১টি ভায়াডাক্টের (খিলান) কাজও শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন পদ্মাসেতুর এক প্রকৌশলী।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের বলেন, সবকিছু অনুকূলে থাকায় অল্প সময়ের মধ্যে ২৮তম স্প্যানটি বসানো সম্ভব হয়েছে। চলতি মাসে আরও একটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা আছে। যেহেতু এখন ঝড়-বাদলের দিন ,তাই একদিন আগে স্প্যান এনে রাখা হয়। পরের দিন তা পিয়ারের ওপরে বসানো হয়। পরিকল্পনামাফিক কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। তাঁরা আশা করছেন, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই সব কাজ সম্পন্ন করা যাবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close