লকডাউনের সময়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে আজান দেওয়া যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর মৃত্যু

লকডাউনের সময়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে আজান দেওয়া নিউ ইয়র্কের ব্রংসে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দীন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোর রাতের দিকে তিনি মারা যান। গিয়াস উদ্দীনের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে।

গিয়াস উদ্দীনের ছেলে আমিন উদ্দীন মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। গিয়াস উদ্দীনের বয়স হয়েছিল ৬২ বছর।গিয়াস উদ্দীন নিউ ইয়র্কের কমিউনিটিতে জনপ্রিয় ছিলেন। করোনাভাইরাসের বিস্তারের কারণে লকডাউন শুরু হলে তিনি ব্রংসের সড়কপথে অন্যদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে আজান দিয়েছিলেন।

গিয়াস উদ্দীন ছাতক সমিতির সাবেক সভাপতি, স্টারলিং বাংলাবাজার বিজনেস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট, বাংলাবাজার জামে মসজিদের সভাপতি, এ এ ডাবল ডিসকাউন্ট–সহ বেশ কয়েকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী।গিয়াস উদ্দীন ১০ এপ্রিল রাত ২টা ১৫ মিনিটে ব্রংসের আইনস্টাইন হাসপাতালে মারা যান। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, ১ মেয়ে রেখে গেছেন।

৩৮ বছর ধরে প্রবাসে ছিলেন গিয়াস উদ্দীন। ১৯৭৮ সালে তিনি বাংলাদেশ থেকে পাড়ি জমান ইরানে। সেখান থেকে জার্মানিতে। তারপর ১৯৮২ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হন।মার্চের শেষের দিকে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close