যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ২ হাজার মৃত্যু

করোনাভাইরাস মহামারিতে বিশ্বে প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে মৃতের সংখ্যা সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়েছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ১০৮ জন আক্রান্ত মানুষের এবং মোট আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হওয়া দেশ হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কার্যালয় হোয়াইট হাউসের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশজুড়ে সংক্রমণ মন্থর হওয়ার দিকে আগাচ্ছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুসারে, বাংলাদেশ সময় শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ১ হাজার ৩০১ জন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৮ হাজার ৭৫৮ জনের এবং সুস্থ হয়েছেন ২৯ হাজার ৭৭ জন। দেশটিতে এ ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে নিউ ইয়র্কে। সেখানে ইতোমধ্যেই মৃতের সংখ্যা সাড়ে ছয় হাজার ছাড়িয়েছে।

হোয়াইট হাউসের করোনা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তা ডা. ডেবোরা ব্রিক্স বলেছেন, ‘সংক্রমণ স্থিতিশীল হওয়ার মতো ভালো ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে’। তবে তিনি সতর্কতার সঙ্গে বলেছেন ‘তা হয়ত এখনও সংক্রমণের চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেনি’।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, প্রাথমিকভাবে যে ১ লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হয়েছিল বাস্তবে হয়ত কম মৃত্যু হতে পারে।

গবেষকরা ধারণা করছিলেন শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা সর্বোচ্চ হতে পারে এবং এরপর তা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করবে। ১ মে’তে দিনে ৯৭০ জনের মৃত্যুতে নেমে আসতে পারে। ওই দিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি পুনরায় সচল করার উদ্যোগ নিচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close