‘করোনা’: ষড়যন্ত্র, যুক্তরাজ্যে আরো চার ফাইভ-জি টাওয়ারে হামলা

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

করোনাভাইরাসের বিস্তৃতির সঙ্গে ফাইভ-জির সম্পর্ক আছে- এমন ভুল তথ্য ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ছে যুক্তরাজ্যে। দেশটিতে নতুন করে আরো চারটি ফাইভ-জি মোবাইল ফোন টাওয়ার হামলার শিকার হয়েছে। ভোদাফোনের এক মুখপাত্র নিশ্চিত করেন যে, তাদের সাইটগুলোতে আরো চারটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। সাইটগুলো ০২ এর সঙ্গে শেয়ার করা।

যুক্তরাজ্যের কালচারাল সেক্রেটারি ওলিভার ডাউডেন ঘোষণা দিয়েছেন আগামী সপ্তাহে বেশকিছু টেক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তিনি ভার্চুয়াল বৈঠকে বসবেন। সেখানে এসব হামলা বন্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া যায় সে বিষয়ে আলোচনা হবে।

ডিজিটাল, কালচার, মিডিয়া ও স্পোর্টস বিভাগের একজন মুখপাত্রী সংবাদ সংস্থা বিবিসিকে জানান, ‘ফোন মাস্টগুলোর ওপর সন্ত্রাসী হামলার কিছু তথ্য আমাদের কাছে এসেছে। ৫জি নিয়ে ষড়যন্ত্র থিওরিতে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভুল তথ্যে অনেক টেলিকম ইঞ্জিনিয়ারকেও হেনস্থা করা হয়েছে। সন্ত্রাসী ঘটনার পেছনে যারাই থাকবে সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা চাই সামাজিক মাধ্যমগুলো আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবে, এসব ভুল তথ্য প্রচারে নিবৃত্ত করতে। আমরা আশা করছি এসব ব্যাপারে তারা তড়িত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’

ভোদাফোনের যুক্তরাজ্যের প্রধান নির্বাহী নিক জেফারি বলেন, ‘আমরা মনেকরি দেশের এ কঠিন সময়ে যখন এনএইচএস ও পুরো দেশকে জরুরি সেবা দেয়া হচ্ছে তখন কিছু লোক নেটওয়ার্ক বিঘ্নিত করতে চাইছে। সে কারণেই এসব হামলার ঘটনা ঘটছে। আমরা ক্ষুদ্ধ হয়েছি এটা জেনে যে, কিছু মানুষ আমাদের ইঞ্জিনিয়ারদের গালাগাল করছে ও হেনস্তা করছে।’
তিনি সবাইকে আহবান জানিয়ে বলেন, ‘৫জির সঙ্গে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া তথ্য পুরোপুরি ভিত্তিহীন। এগুলোতে বিশ্বাস করবেন না, এগুলো সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দেবেন না। কারণ ভূয়া তথ্যের পরিণতি অত্যন্ত ভয়াবহ।’

গত শনিবারও যুক্তরাজ্যে তিনটি ফোন টাওয়ারে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা বলছেন ৫জির সঙ্গে করোনাভাইরাসের কোনো সম্পর্ক নেই।

সূত্র:— এলবিসি নিউজ

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close