ছাতকে শ্বাসরুদ্ধ করে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী আটক

ছাতক প্রতিনিধি ::

সুনামগঞ্জের ছাতকে পারিবারিক কলহের জের ধরে শ্বাসরুদ্ধ করে নিজ স্ত্রী হত্যা করেছে আব্দুস ছালাম নামের এক পাষন্ড।

বাড়ির পাশের একটি জংগলে নিয়ে তাকে হত্যা করা হয়। গত বৃহস্পতিবার উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের বড়গল্লা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গতকাল শুক্রবার ভোরে গ্রাম সংলগ্ন জংগল থেকে গলায় ওড়না পেছানো অবস্থায় গৃহবধূ রাশেদা বেগমের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় রাশেদা বেগমের স্বামী আব্দুস ছালামকে আটক করেছে পুলিশ। আব্দুস ছালাম বড়গল্লা গ্রামের আশরাফ আলীর পুত্র।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে স্বামী আব্দুস ছালাম ও স্ত্রী রাশেদা বেগমের মধ্যে কলহ চলে আসছিল।

স্বামীর সাথে মতবিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রাশেদা বেগম কিশোরগঞ্জ এলাকায় তার পিত্রালয়ে চলে যেতে স্বামীর ঘর ত্যাগ করে। এসময় স্ত্রীকে নিজ ঘরে ফিরিয়ে আনার কৌশলে এক পর্যায়ে তাকে গ্রাম সংলগ্ন একটি জংগলে নিয়ে যায় আব্দুস ছালাম। পরে জংগলের মধ্যে গলায় ওড়না পেছিয়ে শ্বাস রুদ্ধ করে স্ত্রী রাশেদা বেগমকে হত্যা করে সে।

বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান দেওয়ান পীর আব্দুল খালিক রাজা খুনী আব্দুস ছালামকে আটক করে পুলিশে খবর দেন।

গতকাল শুক্রবার ভোরে জংগল থেকে রাশিদা বেগম (৩২)’র লাশ উদ্ধার করে সকালে সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরন করে পুলিশ। এ ঘটনায় আটককৃত আব্দুস ছালামকে সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close