সিলেট নগরীর ৬৫ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সিসিক

সিলেট সিটি করপোরেশনের দরিদ্র, হতদরিদ্র ৬৫ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরন করবেন সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)। প্রতিটি পরিবারকে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি তেল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি ডাল ও আধা কেজি লবণ দেওয়া হবে।মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) রাতে নগরীর ১, ২ ৪ ও ২২ নং ওয়ার্ডে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

করোনাভাইরাস আতঙ্কে সারা দেশেই বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন, বিভিন্ন মার্কেট, শপিং মল ও দোকানপাটও। এমন পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষেরা।

তাই সিলেট নগরীর দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াতে একটি ফান্ড গঠন করে সাহায্যের আবেদন করেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তার এই আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন সিলেট নগরের বিত্তশালী, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। সরকার থেকেও মিলেছে সহায়তা।

সিলেট সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা যায়, সিসিকের নিজস্ব ফান্ড, বিত্তশালী ও ব্যবসায়ীদের সহায়তায় নগরীর ৬৫ হাজার দরিদ্র পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সিসিকের প্রত্যেক কাউন্সিলদের মাধ্যমে ওয়ার্ড ভিত্তিক দরিদ্র মানুষের তালিকা করা হয়েছে। এই তালিকা ধরেই ত্রাণ বিতরণ করা হবে। এই ত্রাণের মধ্যে যোগ হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে দেওয়া ৫০ মেট্রিক টন চালও। যা মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সিসিক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বর্তমানে চলছে প্যাকিংয়ের কাজ।

এ ব্যাপারে সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী বলেন, নগরীর ৬৫ হাজার পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হবে। দরিদ্র মানুষের তালিকা কাউন্সিলদের মাধ্যমে করা হয়েছে।

এই ত্রাণসামগ্রী সংগ্রহ করা হয়েছে সিসিকের নিজস্ব তহবিল, নগরের বিত্তশালী, ব্যবসায়ী ও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে। আমার যে পরিমাণ ত্রাণ বিতরণ করবো এতে অন্তত দরিদ্র মানুষদের না খেয়ে থাকতে হবে না।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, শ্রমজীবী অসহায় মানুষের জন্য খাদ্য ফান্ড গঠনে করে বিভিন্ন মহলের সহযোগিতায় আমরা ত্রাণের সামগ্রী ক্রয় করেছি।

এখন এসব খাদ্য সামগ্রী প্যাকিং করা হয়েছে। আজ রাত থেকে ত্রাণ বিতরণ শুরু হবে। আজকে আমরা ৪টি ওয়ার্ডে দিব। ৪টি ওয়ার্ডে বিতরণ শেষ হলে যদি খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট থাকে তবে সেগুলোও অন্য ওয়ার্ডে বিতরণ করা হবে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নগরীর সব ওয়ার্ডের দরিদ্র মানুষের হাতে আমরা ত্রাণ পৌঁছে দিব।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close