করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ৩ লাখ ডলার দিচ্ছে এডিবি

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশকে তিন লাখ ডলার জরুরি আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। ‘করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এবং অন্য ভাইরাস মোকাবিলায় আঞ্চলিক পর্যায়ের কারিগরি সহায়তা’ শীর্ষক এডিবির আঞ্চলিক তহবিল থেকে এই সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।শনিবার (২৮ মার্চ) এডিবির ঢাকা আবাসিক কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

বার্তায় বলা হয়, বৈশ্বিক সংকট ও করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশের নাগরিকদের পাশে থাকতে চায় এডিবি। এ জন্য বাংলাদেশকে তিন লাখ ডলার জরুরি আর্থিক সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। যাতে এই অর্থ দিয়ে ভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম, ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম, এন ৯৫ মাস্ক, সুরক্ষা চশমা, অ্যাপ্রোন, থার্মোমিটার এবং বায়োহাজার্ড ব্যাগ সংগ্রহ করা যায়। তবে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়ের বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তালিকাকে প্রাধান্য দেওয়া হবে।

বার্তায় এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বলেন, করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশকে এডিবি পূর্ণ সহযোগিতা করে যাবে। বর্তমান জটিল পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের পাশে রয়েছে এডিবি। এডিবির এই সহায়তা করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের সক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করবে।

বার্তায় আরও বলা হয়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গত ১৮ মার্চ ৬৫০ কোটি ডলারের একটি প্রাথমিক তহবিল গঠন করে এডিবি। এ তহবিলের অর্থ ব্যাংকটির উন্নয়ন সহযোগী দেশগুলোতে সরবরাহ করা হবে।এডিবির প্রেসিডেন্ট মাসাতসুগু আসাকাওয়া বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস এখন সারাবিশ্বের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। এটি প্রতিরোধে দরকার জাতীয়, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক স্তরে জোরদার পদক্ষেপ। এ জন্য যখনই আরও আর্থিক সহযোগিতার প্রয়োজন হবে এডিবি তা সরবরাহ করবে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়। এর পরপরই ওই প্রদেশে ব্যাপক মাত্রায় ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাসটি। পরে তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। এতে বর্তমানে প্রায় পৌনে ছয় লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে সাড়ে ২৬ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close