সিলেটে বাড়ানো হয়েছে সেনাবাহিনীর টহল, আজ থেকে গ্রামে অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক::

নেই কোলাহল, নেই মানুষের শোনশান শব্দ, নেই গাড়ি চলাচলের সেই বিরক্তিকর আওয়াজ। ব্যস্ততম শহরে নেই যানজট, নেই জনজট। সবই যেন নীরব, নিস্তব্ধ।

মরণঘাতি নভেল করোনা ভাইরাসের কারনে সিলেটবাসী গৃহবন্ধি রয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাহিরে বের হচ্ছে না।

গত বুধবার (২৫শে মার্চ) সকাল থেকে করোনা প্রতিরোধে সিলেটে মাঠে নামেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

‘ইন এইড সিভিল পাওয়ার’-এর আওতায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা, সন্দেহজনক ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা, প্রবাসীদের হোম কোয়ারান্টাইনে রাখতে কাজ করবে সেনাবাহিনী। পাশাপাশি তারা সিলেটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বেসামরিক প্রশাসনের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখবেন।

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম সুরমা টাইমসকে বলেন, শুক্রবার থেকে সেনাবাহিনীর টহল আরো জোরদার করা হয়েছে। আজ থেকে প্রতিটি গ্রামে লোকসমাগম কমাতে কাজ করবে সেনাবাহিনী।

তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধে সেনাবাহিনী মাঠে কাজ করছে। পুরো সিলেট জুড়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যত প্লাটুন সেনাবাহিনী প্রয়োজন নামানো হবে। প্রয়োজনে পুরো ক্যান্টনম্যান্ট মোতায়েন করেও করোনা মোকাবেলায় করবে সেনাবাহিনী।

করোনার নির্জনতাকে কাজে লাগিয়ে নগরীতে ডাকাতি হওয়ার ঘটনায় তিনি বলেন, এসব ঘটনা এড়াতে পুলিশ সর্বদা তৎপর রয়েছে। করোনা নিরবতাকে কাজে লাগিয়ে যাতে কোন ধরণের চুরি, ডাকাতি না বাড়ে সেদিকেও খেয়াল রাখছে পুলিশ।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close