বিশ্বনাথে পাল্টাপাল্টি হামলায় আহত ১০

সিলেটের বিশ্বনাথে পূর্ব বিরোধের জেরে পাল্টাপাল্টি হামলায় কলেজছাত্রীসহ উভয় পক্ষে ১০জন আহত হয়েছেন। আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলার অলংকারী ইউনিয়নের পিঠাকরা গ্রামের আখতার হোসেন ও ইলিয়াস আলী আল হুমাইদি পক্ষের মধ্যে এ হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। তবে, ঘটনা বৃহস্পতিবারের হলেও স্থানীয়দের দাবি, এ ঘটনা নিয়ে শুক্রবার (২৭ মার্চ) বিকেল পর্যন্ত উভয় পক্ষে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

অন্যদিকে ইলিয়াস আলী আল হুমাইদি ও তার প্রতিপক্ষ আখতার হোসাইন একে অপরের বিরুদ্ধে হামলা করার অভিযোগ করেছেন। ইলিয়াস হুমাইদি জানিয়েছেন রাস্তায় তাকে আখতার পক্ষ প্রথমে হামলা করেছেন আর আখতার হোসেন জানিয়েছেন হুমাইদির বাড়ির পাশ দিয়ে যাবার সময় আগে তার উপর হামলা করা হয়েছে।

জানাগেছে, পিঠাকরা গ্রামে হযরত শাহ্ সুনামদি (রহ.)’সহ তিন ওলির মাজারের দখল নিয়ে বর্তমান মোতায়াল্লী আখতার হোসেন ও মালিকানা দাবিদার ইলিয়াস আলী আল-হুমাইদি পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার বিকেলে মাজারের সামনের রাস্তায় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনায় উভয় পক্ষে ১০জন আহত হন।

আহতরা হলেন, ইলিয়াস আলী আল হুমাইদি (৪৫), তার বড়ভাই আলকাছ আলী (৫০), সুহেল মিয়া (৩৭), বেগম বাহার (৩৮) ও রাগীব রাবেয়া ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রী ইমরানা বেগম (১৮), আখতার হোসেন (৩৫, তার পক্ষের দুদু মিয়া (৪০), জামাল মিয়া (২০), গিয়াস উদ্দিন (২৬) ও সিরাজ মিয়া (৪০)।  বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা বলেন, মাজার নিয়ে বিরোধে দু’পক্ষের সৃষ্ট ঘটনায় এখনও মামলা দেওয়া হয়নি। মামলা দেওয়া হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close