করোনাভাইরাস—ইউরোপকে মহামারির কেন্দ্রস্থল ঘোষণা

সুরমা টাইমস ডেস্ক::

► স্পেনে আক্রান্ত আট বাংলাদেশি
► মৃতের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়াল
► এক দিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ ও মৃত্যু ইরানে

ইউরোপকে প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) মহামারির কেন্দ্রস্থল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ইউরোপের দেশগুলোতে প্রতিদিন এই ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়া ও মৃত্যুহার বাড়তে থাকার প্রেক্ষাপটে গতকাল শুক্রবার এই ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। সংস্থাটি এর আগে গত বুধবার করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে।

এদিকে করোনাভাইরাসে স্পেনে অন্তত আট বাংলাদেশি সংক্রমিত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে সিলেটের তিনজন, ঢাকার এক দম্পতি এবং যশোর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুজন। অপরজনের ঠিকানা জানা যায়নি। আটজনই বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর আগে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে সিঙ্গাপুরে পাঁচজন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে তিনজন করোনা আক্রান্ত হন।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে গতকাল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এক হাজার ১৮৮ জন করোনা আক্রান্তের ঘটনাও ঘটেছে স্পেনে। মারা গেছে ৩৬ জন। তাতে করে দেশটিতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫৮ জন। আর আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে পাঁচ হাজার ৫২২ জন। এর মধ্যে ১৯৩ জন সুস্থ হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গতকাল স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন বলে জানিয়েছে চীনা টেলিভিশন সিজিটিএন।

করোনাভাইরাসে বৈশ্বিক মৃতের সংখ্যা গতকাল পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। বৈশ্বিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা নাগাদ মোট মৃত্যু পাঁচ হাজার ১২২-এ পৌঁছেছে। গতকাল সর্বোচ্চ মৃত্যু ও সংক্রমণ হয়েছে ইরানে। মারা গেছে ৮৫ জন আর সংক্রমিত হয়েছে এক হাজার ২৮৯ জন।

চীনের উহানে শনাক্ত হওয়ার আড়াই মাসের মাথায় ভাইরাসটি বৈশ্বিক মহামারি আকার ধারণ করে। এর পরপরই প্রাণহানির এ সংখ্যা দাঁড়াল। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৩৯ হাজার ৬৬৮ জনে। অবশ্য এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে বাড়ি ফিরেছে ৭০ হাজার ৭৩৩ জন রোগী।

মাদ্রিদে বাংলাদেশের মিশন উপপ্রধান এম হারুন আল রশিদ গতকাল সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের কয়েকজন নেতার কাছ থেকে আমরা আট বাংলাদেশির করোনাভাইরাস সংক্রমণের খবর জেনেছি। সংবাদপত্রেও প্রতিবেদন দেখেছি। আমরা এ বিষয়ে আরো জানার চেষ্টা করছি। তবে বলা হয়েছে, সংক্রমিত ব্যক্তিরা পরিচয় জানাতে চান না। এ কারণে আমাদেরকে কারো নাম জানানো হয়নি।’ তিনি আরো বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমিত বা ক্ষতিগ্রস্তদের ব্যাপারে তথ্য জানতে চেয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য আমরা ইতিমধ্যে একটি হটলাইন (+৩৪৬৭১১৯৬৯৯২) খুলেছি। তবে হটলাইনে এখন পর্যন্ত আমরা কোনো তথ্য পাইনি।’

স্পেনে বাংলাদেশি মানবাধিকার সংস্থা ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি ফজলে এলাহী জানান, দেশটিতে আক্রান্ত বাংলাদেশিদের মধ্যে যে তিনজনের বাড়ি সিলেটে, তাঁদের একজনের বয়স ৪৫, আরেকজনের ৪৩ এবং অপরজন ৩৫ বছর বয়সী নারী। তাঁরা দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসে থাকেন। আক্রান্ত ঢাকার দুজন সম্পর্কে স্বামী-স্ত্রী। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে। আক্রান্ত স্বামীর বয়স ৩৭ ও স্ত্রীর ২৬। তাঁদের দুই মাস বয়সী শিশুসন্তানকে হাসপাতাল হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরিবারটি মাদ্রিদের অদূরে কারাবানচলে থাকে। যশোরের একজন ছাড়াও করোনায় আক্রান্ত অন্য দুজন তরুণ। এর মধ্যে একজনের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। অন্যজনের ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি। তাঁরা মাদ্রিদে দীর্ঘদিন থেকে বসবাসরত।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে ইতিমধ্যে মাদ্রিদ, বার্সেলোনাসহ বেশ কয়েকটি প্রদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অফিস আদালত বন্ধ করা হয়েছে। এমনকি বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের বায়তুল মোকাররম বাংলাদেশ মসজিদে গতকাল জুমার নামাজ হয়নি। যানবাহন ও চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে আনতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। দেশটির স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালুনিয়ার চারটি শহর অবরুদ্ধ করা হয়েছে। ইগুয়ালাডা, ওডেনা, মারগারিদা ও মন্তবুই শহরের কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না।

দুই সপ্তাহ ধরে ভাইরাসটি চীনের বাইরে ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত বুধবার করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডাব্লিউএইচও। গতকাল ডাব্লিউএইচওর প্রধান টেড্রোস আধানম গ্রেব্রিয়েসিস এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘ইউরোপ এখন মহামারির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ মারা যাওয়া একটি করুণ মাইলফলক।’

গতকাল সর্বোচ্চ মৃত্যু ও সংক্রমণ হয়েছে ইরানে। মারা গেছে ৮৫ জন। সংক্রমিত হয়েছে এক হাজার ২৮৯ জন। সংক্রমণ সংখ্যার বিচারে গতকাল তৃতীয় সর্বোচ্চ স্থানে ছিল জার্মানি। সেখানে এক দিনে আক্রান্ত হয়েছে ৩৭২ জন। মারা গেছে একজন। এর পরের অবস্থানে থাকা নেদারল্যান্ডসে গতকাল ১৯০ জন আক্রান্ত হয়েছে, মারা গেছে পাঁচজন। দক্ষিণ কোরিয়ায় এক দিনে আক্রান্ত হয়েছে ১১০ জন, মারা গেছে পাঁচজন। স্কটল্যান্ডে মারা গেছে একজন।

ভারতের দিল্লিতে গতকাল এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার কর্ণাটকে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এ নিয়ে প্রতিবেশী দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দুজনে দাঁড়াল।

গতকাল নতুন দেশ হিসেবে আক্রান্তের কথা জানিয়েছে কাজাখস্তান, কেনিয়া, ইথিওপিয়া, সুদান ও গিনি। এতে করে আক্রান্ত দেশ ও অঞ্চলের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫-এ। কাজাখস্তানের আক্রান্ত ব্যক্তি সম্প্রতি জার্মানি থেকে দেশে ফেরেন। তাঁকে দেশটির বৃহৎ শহর আলমাটির বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে গতকাল কেনিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মুতাহি কাগয়ে জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে দেশটির রাজধানী নাইরোবিতে ২৭ বছর বয়সী এক নারীর শরীরে করোনা মিলেছে। সপ্তাহখানেক আগে যুক্তরাষ্ট্র থেকে লন্ডন হয়ে তিনি দেশে ফেরেন। ইথিওপিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী লিয়া কেবেদে গতকাল জানান, ৪৮ বছর বয়সী এক জাপানি সম্প্রতি বুরকিনা ফাসো থেকে ইথিওপিয়ায় আসেন। তাঁর শরীরে করোনার অস্তিত্ব মিলেছে।

এভারেস্টে আরোহণ বন্ধ ::—

করোনা মোকাবেলায় দুনিয়ার সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে সব ধরনের অভিযান সাময়িকভাবে স্থগিত করার ঘোষণা গতকাল দিয়েছে নেপাল। এর আগের দিন চীন তাদের সীমানা থেকে এভারেস্টে প্রবেশাধিকার বন্ধ করে দেয়।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, নেপাল দেশটির সব আবর্তে এভারেস্টে আরোহণ বন্ধ করে দিয়েছে এবং পর্যটক ভিসা দেওয়া বন্ধ রেখেছে। দেশটির সংস্কৃতি, পর্যটন ও বেসামরিক বিমান চলাচলবিষয়ক মন্ত্রী যোগেশ ভট্টরাই বলেছেন, সরকার এভারেস্টে বসন্তের সব অভিযান স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সামনের দিনগুলোয় বিশ্বের সামগ্রিক প্রেক্ষাপট পর্যালোচনা করে এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হবে।

বৈশ্বিক পদক্ষেপ ::—

করোনা মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত ছয়টি অঙ্গরাজ্য আগামী সোমবার থেকে কমপক্ষে দুই সপ্তাহের জন্য স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছে। অঙ্গরাজ্যগুলো হলো ওহাইও, মিশিগান, অরেগন, মেরিল্যান্ড, কেন্টাকি ও নিউ মেক্সিকো। মিশিগানের গভর্নর গ্রেটচেন হিটমার বলেন, ‘আমাদের শিশু, পরিবার সর্বোপরি জনস্বাস্থ্যর সুরক্ষায় এ পদক্ষেপ নেওয়া খুব জরুরি। যেসব শিশু খাবারের জন্য বিদ্যালয়ের ওপর নির্ভরশীল তাদের খাবার সরবরাহ নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

করোনার প্রাদুর্ভাবে গত এক শতকের মধ্যে ফ্রান্সে সবচেয়ে নাজুক স্বাস্থ্য পরিস্থিতি বিরাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। দেশটির সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন দেশটির এক মন্ত্রী। গতকাল ফরাসি স্বাস্থ্যমন্ত্রী অলিভিয়ার ভেরান জানিয়েছেন, পরিস্থিতি অনুযায়ী সর্বনিম্ন সময়ের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। বন্ধের সময় সর্বনিম্ন ১৫ দিন হবে।

এদিকে স্ত্রী সোফির শরীরে করোনাভাইরাস মেলার পর স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে গেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। যদিও তাঁর শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ মেলেনি। এদিকে করোনা ঠেকাতে দেশটির হাউস অব কমনস পাঁচ সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে সতর্কতা জারি করেছে পর্তুগাল সরকার। পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশটির পুলিশ ও সেনাবাহিনীকে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উহানে সর্বনিম্ন আক্রান্ত ::—

করোনাভাইরাসটির কেন্দ্রস্থল চীনে নতুন করে মারা গেছে আটজন; আক্রান্ত হয়েছে ২১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ভাইরাসটির উৎসস্থল হুবেই প্রদেশের উহানের বাসিন্দা আছে পাঁচজন। গত জানুয়ারি থেকে আক্রান্তের হিসাব শুরু হওয়ার পর এটিই সর্বনিম্ন সংখ্যা। আক্রান্তদের বাকি তিনজন বিদেশফেরত। এর মধ্যে দুজন সাংহাইয়ের; বাকিজন রাজধানী বেইজিংয়ের।

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট আক্রান্ত ::—

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য টেলিগ্রাফ। তিনি সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। এরপর দেশে ফিরে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন বোলসোনারো। তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ার পর তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, এক সপ্তাহ আগে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা রিসোর্টে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট। দ্বিপক্ষীয় আলোচনার পরে এক নৈশভোজের অনুষ্ঠানে ট্রাম্প ও বোলসোনারো পাশাপাশি বসে ছিলেন। 

আক্রান্ত ফিলিপাইনের কূটনীতিক::—

নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তর পরিদর্শন করার পর আক্রান্ত হয়েছেন ফিলিপাইনের এক কূটনীতিক। ফিলিপাইনের মিশন জানিয়েছে, গত সোমবার জাতিসংঘ সদর দপ্তর পরিদর্শন করার পর তাঁর শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মিশন অবরুদ্ধ করা হয়েছে। স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টাইনে গেছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও আক্রান্ত ::—

করোনা আক্রান্ত হয়ে গতকাল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পিটার ডুটন। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে এক বৈঠকে যোগ দিয়ে দেশে ফেরার কয়েক দিন পর তাঁর শরীরে করোনার অস্তিত্ব মিলল। তিনি বর্তমানে কুইন্সল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গতকাল এক টুইট বার্তায় পিটার ডুটন জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠেই গলায় খুসখুস ও শরীরে অতিরিক্ত তাপমাত্রা অনুভব করেন। তত্ক্ষণাৎ স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ডুটন। কারো শরীরে করোনা ধরা পড়লেই হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার নির্দেশকা আছে কুইন্সল্যান্ড কর্তৃপক্ষের। সে মোতাবেক তিনি তত্ক্ষণাৎ হাসপাতালে ভর্তি হন।

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ানদের বিদেশ ভ্রমণের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। এর আগে চীন, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া ও ইরান ভ্রমণের ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়া নাগরিকদের সতর্ক করেছিল। তবে ভাইরাসটি এখন বৈশ্বিক মহামারি রূপ পাওয়ায় সব দেশের জন্যই এবার সতর্কবার্তা এলো।

পাকিস্তানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা ::—

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের আতঙ্কে পাকিস্তানের সব স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার পর এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় দেশটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এক টুইট বার্তায় শিক্ষামন্ত্রী শাফকাত মাহমুদ বলেন, বৈঠকে এপ্রিলের ৫ তারিখ পর্যন্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

—সূত্র ::— কালের কন্ঠ ।।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close