কানাইঘাটের সেই প্রবাসী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নন

অবশেষে শঙ্কামুক্ত হওয়া গেলো। করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন সেই প্রবাসীর শরীরে করোনাভাইরাসের অস্থিত্ব পাওয়া যায়নি। এমনটি জানিয়েছেন সিলেট এমজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়।

শনিবার রাতে তিনি জানান, সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) বৃহস্পতিবার ওই রোগীর রক্তের নমুনা ঢাকায় নিয়ে গিয়েছিলো। আজস তারা মৌখিকভাবে জানিয়েছেন পরীক্ষা-নীরিক্ষায় রোগীর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। রোববার তারা এসংক্রান্ত লিখিত রিপোর্ট পাঠাবে।

প্রসঙ্গত, কানাইঘাট উপজেলার সুতারগ্রামের প্রবাসী জাকারিয়া (৩২) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে গত বুধবার থেকে সিলেট ডা. শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আছেন। জাকারিয়া দুবাইয়ের একটি আবাসিক হোটেলে কাজ করতেন। সেই হোটেলের সবচেয়ে বেশি কাস্টমার ছিল চীনের নাগরিক। দুবাই থাকাকালীন জাকারিয়ার শরীরে জ্বর উঠে। সেখানে চিকিৎসাও করান। অবস্থার তেমন উন্নতি না হওয়ায় তিনি দুবাই থেকে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি দেশে চলে আসেন। দেশে আসার পরও তার শরীরের জ্বর ও কাশি কমেনি। পরে গত বুধবার তিনি এসব উপসর্গ নিয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। উপসর্গ শুনে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকায় যেতে বলেন। কিন্তু সে ঢাকায় যেতে না চাওয়ায় তাকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন।

তার শারিরীক অবস্থা আগের চাইতে একটু ভালো। সে এখন ঘন ঘন কাশছে না এবং জ্বরের মাত্রাও একটু কম।

এদিকে, গত বৃহস্পতিবার তার রক্ত সংগ্রহ করেছে আইসিসিডিআর’র টিম। ওইদিনই রক্ত ঢাকায় পাঠানো হয়েছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close