মুসলমানদের হত্যা, নির্যাতন, মসজিদে অগ্নিসংযোগের অভিযোগে ছাতকে বিক্ষোভ

ভারতের দিল্লিতে মুসলমানদের হত্যা, নির্যাতন, মসজিদে অগ্নিসংযোগের অভিযোগে ছাতকে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (০৬মার্চ) বাদ জুম্মা শহরের কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

গনেশপুর মাদ্রাসার মুহতামিম শায়েখ মাওলানা আব্দুল হান্নানের সভাপতিত্বে ও পৌর খেলাফত মজলিসের সাধারন সম্পাদক ফারুক আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বার্ষিকীতে বিশ্ব সন্ত্রাসী ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলার পবিত্র মাটি স্পর্শ করতে দেয়া হবে না। যেকোন মুল্যে মোদির বাংলাদেশে আগমন প্রতিহত করা হবে। ইমানী দায়িত্ব পালন করতে প্রয়োজনে ভারত অভিমুখে লংমার্চ করবে এদেশের লক্ষ-লক্ষ মুসলমান। ইসলাম বিরোধীদের মোকাবেলা করতে যে কোন পরিস্থিতির জন্য মুসলমানদের প্রস্তুত থাকার আহবান জানান বক্তারা।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, মাওলানা ফজলুর রহমান, মাওলানা আকিক হোসাইন, মাওলানা আক্তার হোসেন, মাওলানা তাজুল ইসলাম, মাওলানা আমিনুর রহমান, মাওলানা আব্দুস ছালাম, মাওলানা নোমান আহমদ, মাওলানা আব্দুল কাদির, মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম, মাওলানা দ্বীন মোহাম্মদ, মাওলানা ইমাদ উদ্দিন মানিক, মাওলানা আবুল হাসনাত প্রমুখ।

এসময় মাওলানা আলী আজগর খান, কাজী মাওলানা ইসলাম উদ্দিন, মাওলানা আব্দুল গাফফার আল হাসান, মাওলানা কামরুজ্জামান, হাজী আফাজ উদ্দিন, সাবেক কমিশনার রজনু আহমদ, ছালিক মিয়া চৌধুরী রুকন, হাজী আলাউদ্দিন, সামছুল হক, মাওলানা নাছির উদ্দিন, হাজী বাবুল মিয়া, আশরাফুল হক খেলন, ছাদিক মিয়া তালুকদার, মকবুল হোসেন, রুহুল আমিন, দিলোয়ার হোসেনসহ সর্বস্থরের মুসল্লিগন উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিভিন্ন এলাকা থেকে খন্ড-খন্ড মিছিল করে সমাবেশ স্থলে যোগ দেন মুসল্লিরা। এক পর্যায়ে গোটা শহর মিছিলের শহরে পরিনত হয়।

সমাবেশ শেষে কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারের সামন থেকে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে ট্রাফিক পয়েন্টে এসে শেষ হয়। পরে বিক্ষাভকারীরা নরেন্দ্র মোদির অসংখ্য কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। শান্তিপূর্ণ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরের হিন্দু ধর্মাবলম্বিদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সামনে মুসল্লিরা উপস্থিত থেকে নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close