হলিউডি ভিলেনদের জন্য যে কারনে নিষিদ্ধ ‘আইফোন’

বিনোদন ডেস্ক::

নিজেদের পণ্যের সুনাম সম্পর্কে বরাবরই সচেতন মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল। ‌‍‍‍‌‌‍‍‍‌‌‌‌‍‍‌‌‍‍‌‌‍‍‌‌‍‍‌‌‍‍‌‌‌‍‌‌‌‌‌তবে, ঠিক কতটা সচেতন, সে বিষয়ে একটা বড়সড় প্রমাণ মিলেছে এবার। কোনো চলচ্চিত্রে ভিলেন বা খলনায়ক চরিত্রের ক্ষেত্রে আইফোন ব্যবহার এমনকি এর লোগো প্রদর্শনের পর্যন্ত অনুমতি দেয় না প্রতিষ্ঠানটি।

তথ্যটি সম্প্রতি জানিয়েছেন হলিউডের চলচ্চিত্র নির্মাতা রায়ান জনসন। তার হাতে তৈরি সিনেমার মধ্যে রয়েছে অস্কার মনোনয়ন পাওয়া নাইভস আউট এবং স্টার ওয়ার্স: লাস্ট জেডাই।

ভ্যানিটি ফেয়ারের সঙ্গে একটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে অংশ নেন এই নন্দিত নির্মাতা। গত মঙ্গলবার প্রকাশিত সেই সাক্ষাৎকারে রায়ান জনসন বলেন, আমি জানি না এটি আমার বলা উচিত হচ্ছে কি না… অ্যাপল… আপনাকে সিনেমায় আইফোন ব্যবহার করতে দেয়, কিন্তু … রহস্য চলচ্চিত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এটি … কোনো খল চরিত্র ক্যামেরার সামনে আইফোন ব্যবহার বা প্রদর্শন করতে পারে না।

পরিচালক রায়ান জনসন রসিকতা করেই হাসতে হাসতে বলেন, সিনেমায় কার হাতে কোন ফোন আছে, সেই ব্র্যান্ড দেখেই আপনি বলে দিতে পারবেন এই সিনেমায় কে নায়ক আর কে ভিলেন।

যেসব তথ্য আগেভাগে জানা থাকলে সিনেমার মজা বা রোমাঞ্চ ন’ষ্ট হয়ে যায়, সেগুলোকে সিনেমাপ্রেমীরা সোজা ভাষায় “স্পয়লার” বলেন। চলচ্চিত্র নির্মাতা রায়ান জনসন তার সাক্ষাৎকারে যে তথ্য দিলেন, তা বহু সিনেমার জন্যই স্পয়লার হতে পারে।

বিষয়টি আঁচ করেই তিনি বলে ফেলেন, এখন হলিউডে কাজ চলছে এমন যে যে সিনেমায় এমন ভিলেন আছে যার পরিচয় শুরুতে গোপন থাকে, ওইসব সিনেমার পরিচালকরা সম্ভবত আমাকে খু’ন করে ফেলতে চাইবে… হা হা হা।

চলচ্চিত্রে অ্যাপল পণ্য ব্যবহার করতে সবাইকে অ্যাপলের ‘প্রডাক্ট রিপ্লেসমেন্ট’ নিয়ম মেনে চলতে হয়। ওই নিয়ম মেনে চলতে গেলেই নে’তিবাচক চরিত্রের হাতে আর আইফোন তুলে দেওয়া সম্ভব হয় না।

বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য চাইলেও অনুরোধে এখনও সাড়া দেয়নি অ্যাপল।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close