মুহিবুর রহমান মানিক একজন উন্নয়ন প্রেমি সাংসদ– পরিকল্পনা মন্ত্রী

ছাতক প্রতিনিধি :: বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, মুহিবুর রহমান মানিক একজন উন্নয়ন বান্ধব সাংসদ, তার বিকল্প অদূর ভবিষ্যতেও ছাতক-দোয়ারায় তৈরি হবে কিনা সন্দেহ। মন্ত্রী বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যেকোনো উন্নয়নের প্রস্তাব করলে তিনি ফিরিয়ে দেন না। এজন্য আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে পরিশ্রম করতে হবে।

তিনি বলেন- আওয়ামীলীগ সরকার মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে, এ সরকারের লক্ষ্য উদ্দেশ্য জাতিকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে, যোগাযোগ, বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়ন, এমনকি শহরের জনগন যে সুযোগ-সুবিধে পায়, গ্রামের সাধারণ জনগনও সে সুযোগ সুবিধে পাওয়ার লক্ষ্যে নিরলসভাবে আমাদের এ সরকার কাজ করছে।

এরই অংশ হিসেবে আটগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, আটগ্রামসহ ছাতক-দোয়ারাও এর বাইরে নয়। শনিবার বিকেলে ছাতকের জাউয়া বাজার ইউনিয়নের বড়কাপন আটগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় ও এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে মন্ত্রী এমএ মান্নান ও স্থানীয় এমপি মুহিবুর রহমান মানিক’র সম্মানে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে হাইস্কুলের জাতীয়করণ, যোযোগ ক্ষেত্রে কাচা-পাকা সড়ক নির্মাণ, বিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়ন এবং ৫টি ইউনিয়ন নিয়ে প্রস্তাবিত স্বতন্ত্র জাউয়া বাজার উপজেলা বাস্তবায়নের লক্ষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আটগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিদ্যালয় এসএমসি’র সভাপতি আল-মামুন শাহীনের সভাপতিত্বে ও সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি এমএ রশিদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, ছাতক-দোয়ারা নির্বাচনী আসনের সাংসদ মুহিবুর রহমান মানিক।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ছাতক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) আবু সাদাত লাহিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপি বেগম, ছাতকের ইউএনও গোলাম কবির, অধ্যক্ষ আব্দুল গাফ্ফার, জাউয়া বাজার উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ’র সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গিয়াস মিয়া, উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাউয়া ইউপি চেয়ারম্যান মুরাদ হোসেন, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল আহমদ, ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার আওলাদ হোসেন, আক্তার হোসেন, গয়াছ আহমদ, সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা কদর মিয়া, আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম, আখলুছ মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ’র সাবেক কমান্ডার আনোয়ার রহমান তোতা মিয়া।

স্থানীয় হাজী ইছকন্দর আলী, সাবেক মেম্বার মুক্তিযোদ্ধা আলতাব আলী, আটগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীরসহ আ’লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রধান ও বিশেষ অতিথিবৃন্দকে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মাও: আমির আলী। সন্ধ্যায় খ্যাতনামা শিল্পীবৃন্দ সংগীত পরিবেশন করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close