সোনার দামে রেকর্ড,দেশের ইতিহাসে দাম এই পর্যায়ে ওঠেনি

বুধবার থেকে দেশের বাজারে রেকর্ড দামে সোনা বিক্রি হবে। বিশ্ববাজার ঊর্ধ্বমুখী থাকায় দেশের বাজারেও নতুন করে সোনার দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জুয়েলার্স ব্যবসায়ীরা। বুধবার থেকে সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৭ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ৬১ হাজার ৫২৮ টাকা দাঁড়াবে।

দেশের ইতিহাসে আগে কখনই সোনার দাম এই পর্যায়ে ওঠেনি। তার আগে সোনার সর্বোচ্চ দাম ছিল ৬০ হাজার ৬৫৩ টাকা ভরি। ২০১২ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর এই দাম উঠেছিল।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি মঙ্গলবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সোনার দাম বৃদ্ধির বিষয়টি জানিয়েছে। তারা বলছে, বৈশ্বিক অস্থিরতার কারণে আন্তর্জাতিক বাজার ও দেশের বুলিয়ন মার্কেটে সোনার দর বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে সোনার দাম বাড়ছে।

জুয়েলার্স সমিতি সর্বশেষ গত ৫ জানুয়ারি সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বৃদ্ধি করেছিল। তাতে প্রতি ভরির দাম দাঁড়িয়েছিল ৬০ হাজার ৩৬১ টাকা। কাল আবার দাম বৃদ্ধি পেলেই সোনার দাম দেশের ইতিহাসের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছাবে।

জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, সোনার ভরি ৬১ হাজার ৫২৮ টাকা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দাম। চীনের করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ববাজারে নতুন করে সোনার দাম বাড়ছে। সে জন্য দেশে আমরা দাম বৃদ্ধি করতে বাধ্য হয়েছি।

দেশের বাজারে দর বৃদ্ধি পাওয়ায় কাল থেকে প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেট সোনা ৬১ হাজার ৫২৮ টাকা, ২১ ক্যারেট ৫৯ হাজার ১৯৫ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৫৪ হাজার ১৮০ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরি বিক্রি হবে ৪১ হাজার ৪০৭ টাকায়। তবে রুপার দাম অপরিবর্তিত থাকবে, ভরি ৯৩৩ টাকা। কাল থেকে ২২, ২১ ১৮ ক্যারেট ও সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৭ টাকা করে বাড়ছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close