ক্যাচ লুফে নিতে গিয়ে দুর্ঘটনায় হাসপাতালে নারী ক্রিকেটার

ক্রীড়া ডেস্ক:ক্রিকেট যেমন রাজকীয় ও জনপ্রিয় খেলা তেমনই কখনো কখনো ভয়ংকরও হয়ে ওঠে।মাঠে বল গায়ে লেগে মৃত্যুও হয়েছে ক্রিকেটারের-এমন মর্মান্তিক ইতিহাসও আছে কয়েকটি।

এবার সেই ইতিহাসে আরেকটি নাম যুক্ত হতে যাচ্ছিল প্রায়, তবে স্রষ্টার ইচ্ছায় শেষ রক্ষা হয়েছে ওই ক্রিকেটারের।ক্যাচ লুফে নিতে গিয়ে এমন দুর্ঘটনায় পড়েছেন শ্রীলংকার নারী দলের পেসার আচিনি কুলাসুরিয়া। মারাত্মক আহত হয়ে হাসপাতালের দারস্থ হতে হয় তাকে।

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে গতকাল সিডনিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নেমেছিল শ্রীলঙ্কা।

ম্যাচের এক পর্যায়ে আফ্রিকার ব্যাটসম্যান ক্লো তাইরনের জোরে হাঁকানো একটি বল লং অনে ক্যাচ তুলে দেন।

আকাশে ভেসে ওঠা ক্যাচটা নিতে হাত পেতেছিলেন আচিনি কুলাসুরিয়া। কিন্তু সেটি তার হাত ফাঁক গলে সরাসরি তার মুখে লাগে। সঙ্গে সঙ্গেই মাটিতে পড়ে যান তিনি।

রক্তাক্ত হয়ে ওঠে কোমল মুখখানা। ফিজিও মাঠে দ্রুত দৌড়ে এসে অবস্থা বেগতিক দেখে অ্যাম্বুলেন্সে করে আহত কুলাসুরিয়া হাসপাতালে পাঠান।

চোট গুরুতর হলেও এ যাত্রায় কুলুসুরিয়া বেঁচে গেছেন বলে জানিয়েছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের একজন মুখপাত্র।

ওই মুখপাত্র জানান, আকাশে ওঠা সেই বলটি কোথায় পড়বে আন্দাজ করতে পারেননি কুলুসুরিয়া। আঘাত পাওয়ার পর হাসপাতালে দ্রুত নেয়ায় অনেকটাই সেরে উঠেছেন তিনি। হাসপাতাল থেকে ছাড়াও পেয়েছেন। অ্যাডিলেইডের টিম হোটেলে ফিরে গেছেন এই লঙ্কান ক্রিকেটার।

এদিকে জানা গেছে, কুলুসুরিয়া আহত হওয়ার পর প্রস্তুতি ম্যাচটাই বাতিল বলে ঘোষণা হয়। মাঠে আর একটি বলও গড়ায়নি।

তবে অস্ট্রেলিয়ায় নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগে লঙ্কান পেসারের এমন দুঘর্টনা দলটির জন্য দুঃসংবাদই বটে।

প্রসঙ্গত, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সিডনির শোগ্রাউন্ড স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই শক্তিশালী দল ভারত ও অস্ট্রেলিয়া।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close