উপজেলা চেয়ারম্যানের নির্দেশে এডিপির টেন্ডার স্থগিত ,সকল মহলে তীব্র ক্ষোভ

মৌলভীবাজারে জুড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুকের অনুপস্থিতিতে উপজেলা পরিষদ উন্নয়ন তহবিল এর আওতায় ২০১৯-২০ অর্থবছরের কাজের দরপত্র আহবান করে স্থগিত করেছেন উপজেলা প্রকৌশলী। এ নিয়ে সকল মহলে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

উপজেলা পরিষদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, জুড়ী উপজেলা পরিষদ উন্নয়ন তহবিল এডিপির আওতায় ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের দুঃস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন সরবরাহ ও নলকূপ স্থাপনের জন্য গত ৬ ফেব্রুয়ারি উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে উপজেলা পরিষদের তালিকাভুক্ত ঠিকাদারদের কাছ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি দরপত্র জমা দেওয়ার জন্য নোটিশ দেওয়া হয়।

সে অনুযায়ী অনেক ঠিকাদার দরপত্র নিতে এসে দেখেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিদেশ থেকে ফোনে না করায় উপজেলা প্রকৌশলী বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করেন।

১১ ফেব্রুয়ারি উপজেলা প্রকৌশলী স্বাক্ষরিত নোটিশে বলা হয়, জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুক সাহেবের অনুরোধে গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টায় বিদেশ থেকে ফোনের মাধ্যমে ২ ফেব্রুয়ারি এর দরপত্র কোটেশনটি স্থগিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান যেহেতু সভাপতি তাই উনার অনুরোধে স্থগিত করা হয়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যানকে না জানিয়ে এ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে প্রকৌশলী বলেন, উনি জানেন তারপরও উনার অনুরোধ আমরা রেখেছি।

ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা বলেন, এটা কেন করা হলো আমি জানি না। আমি মিটিং এ বলেছি যে স্থগিত না করার জন্য।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close