বানিয়াচংয়ে ইউপি সদস্যের লাশ উদ্ধার

নিহতের স্বজনদের আহাজারি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার পুকড়া ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য অরুন দাসের (৬০) মরদেহ পুকর পাড় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ ধারণা করছে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ফেলে রাখা হয়েছে। এছাড়া তার বাম দিকের চোখও উপড়ে ফেলা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার (১১ই ফেব্রুয়ারি) সকালে বাড়ির পাশ্ববর্তী পুকুর পড়ে মরদেহটি দেখতে পান স্থানীয়রা। দুপুরে উদ্ধারের পর মরদেহ হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে বানিয়াচং থানা পুলিশ। পুকড়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, গত সোমবার (১০ই ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের একটি উৎসবে যোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে পাশ্ববর্তী কবিরপুর গ্রামে গিয়ে আর ফিরেননি অরুন। পরদিন গতকাল মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় একটি পুকুর পাড়ে তার মরদেহ পাওয়া যায়। অরুন দাসের বাম দিকের চোখটি ছিল না। মনে হচ্ছে ধারালো অস্ত্র দিয়ে সেটি উপড়ে ফেলা হয়েছে।

কারো সাথে অরুনের শত্রুতা ছিল কি না জানতে চাইলে চেয়ারম্যান বলেন, এ ধরনের কিছু আমার জানা নেই। তবে তিনি এলাকায় চুরি-ডাকাতির বিরুদ্ধে স্বোচ্ছার ছিলেন।

বানিয়াচং সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মোঃ সেলিম মিয়া বলেন, এটি নিঃসন্দেহে একেটি হত্যাকান্ড। ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তাকে ফেলে রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close