দিরাইয়ে নানা আয়োজনে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে স্মরণ

দিরাই প্রতিনিধি ::

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় নানা আয়োজনে উদযাপন করা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ভাটিবাংলার সিংহপুরুষ, সংসদ কবি ও জাতীয় নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের তৃতীয় প্রয়াণ দিবস। ২০১৭ সালের ৫ ফেব্রুয়ারির এই দিনে তিনি মৃত্যুবরণ করেছিলেন।

সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষ্যে বুধবার (৫ই ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টা থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন, দিরাই প্রেসক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা খেলাঘর, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, ব্যবসায়ী সমিতির কামাল পরিষদ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত মহিলা কলেজ ও পলিটেনিক ইন্স্টিটিউটসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে।

এসব কর্মসূচির মধ্যে ছিল, সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের নিজ বাসভবনস্থ সমাধিস্থলে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, শোকর‌্যালি ও আলোচনা সভা। সর্বপ্রথম প্রয়াত স্বামীর সমাধিস্থলে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন ড.জয়া সেনগুপ্তা এমপি।

বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয় থেকে শোকর‌্যালি বের করে পৌরশহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা গণমিলনায়তন হলে আলোচনা সভায় মিলিত হন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আছাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং দপ্তর সম্পাদক বিকাশ রায়ের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ড. জয়া সেনগুপ্তা এমপি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ও অসাম্প্রদায়িক মুক্তিসংগ্রামের চেতনায় আজন্ম কাটিয়েছেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। তিনি আপনাদের ভালোবাসা নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছিলেন, আপনাদের ভালোবাসা নিয়েই তাঁর রজনীতি ও জীবনের অবসান ঘটে। তাঁর সম্পর্কে আমার চেয়ে আপনারা ভালো জানেন। কারণ জীবনের বেশিরভাগ সময় তিনি আপনাদের সাথেই কাটিয়েছেন।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিরাজ উদ দৌলা, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়, শোকসভা উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সোহেল আহমদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার, যুগ্ম-সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোশাররফ মিয়া, যুগ্ম-সম্পাদক লুৎফুর রহমান এওর মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট অভিরাম তালুকদার, প্রেসক্লাব সভাপতি হাবিবুর রহমান তালুকদার, যুবলীগের সভাপতি রঞ্জন রায়, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহন চৌধুরী, নারী ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রিপা সিনহা, প্যানেল মেয়র ও যুবলীগ নেতা বিশ্বজিৎ রায়, ইউপি চেয়ারম্যান রেজুয়ান খান, শিবলী আহমেদ বেগ, এহসান চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা সাদিকুর রহমান ছাও মিয়া, ইশতিয়াক হোসন মঞ্জু, আইদুল্লা, শাহজাহান সিরাজ, যুবলীগ নেতা রঞ্জন , ফারুক সরদার, লালন মিয়া, কলিম উদ্দিন, কাউন্সিলর সবুজ মিয়া, সিলেট মহানগর যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান, দিরাই পৌর যুবলীগের সভাপতি সারোয়ার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মিয়া, আফজাল আহমদ, উজ্জ্বল মিয়া, রাজীব রায়, মারুফ আহমেদ জয়, জাহাঙ্গীর আলম মোহন, মাসুম আহমদ, সজীব নুর প্রমুখ।

আলোচনা শেষে গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত শিশুদের মধ্যে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি ড. জয়া সেনগুপ্তাসহ অতিথিবৃন্দ।

এরপর চিত্রশিল্পী বাবুল চন্দ্র সূত্রধর নিজের হাতে রং-তুলি দিয়ে আঁকা প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের একটি ছবি ড. জয়া সেনগুপ্তার হাতে তুলে দেন। বাবুল সূত্রধর তার অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ‘সুরঞ্জিত বাবু ছিলেন অনেক বড় মাপের নেতা। শিশুকাল থেকে তাঁর বক্তব্য শুনতাম। একপর্যায়ে তাঁর ভক্ত হয়ে গেলাম। হাতে রং আর তুলি নিয়ে কাপড়ের মধ্যে তাঁর ছবি আঁকতে শুরু করি। ১৯৯২ সালে আজ থেকে ২৯ বছর আগে তাঁর এই ছবিটি চিত্রায়িত করি। ইচ্ছা ছিল জীবদ্দশায় তাঁর হাতেই ছবিটি তুলে দেব, কিন্তু সেই সুযোগ আর হয়ে উঠেনি। আজ তাঁর ৩য় প্রয়ান দিবসে তাঁর সুযোগ্য সহধর্মিনি মমতাময়ী নেত্রী জয়া সেনগুপ্তার হাতে ছবি তুলে দিতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।’

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close