বিয়ানীবাজারে তুচ্ছ ঘটনার জেরে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি ::

বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের বিবদমান দু’পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। তুচ্ছ ঘটনার জেরে ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ, দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের ১০ নেতাকর্মী আহত হন।

মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ২টার দিকে পৌর শহরের কলেজ রোডে এ ঘটনা ঘটে। পরে সংঘর্ষ শহরের টিঅ্যান্ডটি রোডে ছড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানার ওসি অবনী শংকর কর ও পুলিশ পরিদর্শক জাহিদুল হক একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা যায়, দুপুরে বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা বের করে ছাত্রলীগ রিভারবেল্ট গ্রুপ ও ছাত্রলীগ স্বাধীন গ্রুপ। পৃথক শোভাযাত্রায় সংগঠনের বিবদমান দুই গ্রুপের কর্মীরা বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এর জের থেকে হাতাহাতির ঘটনা ঘটলে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে তুচ্ছ ঘটনাটি সংঘর্ষে রূপ নেয়। দেশি অস্ত্র নিয়ে উভয়পক্ষ প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে জুনেদ আহমদ, ফখরুল ইসলাম, মুরাদ আহমদ, আশরাফুল হক রুনু, সালাহ উদ্দিন, জাকারিয়া আহমদ ও জাকির হোসেনসহ ১০ নেতাকর্মী আহত হন। এর মধ্যে জুনেদ, জাকির ও ফখরুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ফের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি জানান, এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close